আমাদের দুনিয়াতে জল বায়ু আরও বেশী করে অস্বাভাবিক হয়ে যাচ্ছে, শুধু একটা জিনিসই সঠিক করে বলা যায় যে, বিপজ্জনক আবহাওয়া সংক্রান্ত ঘটনার সংখ্যা বাড়তেই থাকবে. যাতে গরম ও বন্যা এই বছরের গরম কালের মতো সকলকে হঠাত্ করে অপ্রস্তুত বলে না প্রমাণ করে, তার জন্য মানব সমাজকে তৈরী হতে হবে নতুন সমস্ত বিষয়ের হের ফের এর সঙ্গে মানিয়ে নিতে. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির উপদেষ্টা এবং বিশ্ব জলবায়ু সংস্থার প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার বেদরিতস্কি তাই মনে করেছেন.বিগত কয়েক বছরে বিশ্বের আবহাওয়ার প্রধান বৈশিষ্ট্য হল তার অস্থিতিশীলতা. গরম কালে চরম উষ্ণ তাপমাত্রা ও শীতকালে চরম ঠাণ্ডা. আর বিশ্বের উষ্ণায়ন এবং তাপমাত্রার সব মিলিয়ে বেড়ে যাওয়ার ফলে এই ওঠা নামার প্রসার খালি বাড়ছেই, তাই আলেকজান্ডার বেদরিতস্কি উল্লেখ করে বলেছেন:"গরমের হলকা বিশ্বের উষ্ণায়নের একটা প্রকাশ বা লক্ষণ বলা যেতে পারে. এই বছরের গরম কাল রাশিয়া প্রজাতন্ত্রে ও তার ইউরোপীয় অংশে – এর একটা উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত. বিভিন্ন দেশের সরকারের মধ্যে যে সমস্ত বিশেষজ্ঞরা আছেন, তারা যে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন. তার থেকে মনে করা যেতে পারে যে, এই রকম ভয়ানক গরমের তরঙ্গ আরও বারবার আসবেই".বেদরিতস্কির কথামতো, এই সমস্ত বিশ্ব মানের ঘটনার সঙ্গে মানুষের কাজ কর্মের যোগাযোগ রয়েছে. বিশ্বের উষ্ণায়ন কোন রূপকথা নয়, আর তার একটি কারণ শিল্প ও জ্বালানী শক্তি উত্পাদন কেন্দ্র গুলি থেকে পরিবেশে গ্রীন হাউস এফেক্ট সৃষ্টি কারী কার্বন যৌগের বিপুল সংযোজন. আজ মানব সমাজের সামনে এক প্রশ্ন রয়েছে, এমন ভাবে অর্থনৈতিক উন্নতি করতে হবে, যাতে আবহাওয়া এবং পরিবেশের উপরে তার প্রভাব খুবই কম পড়ে. কিন্তু উষ্ণায়নের সঙ্গে লড়াই চলবে অনেক দিন ধরে. আর এখন মানুষকে ব্যবস্থা নিতে হবে যাতে এর প্রভাব কমানো যায় সমস্ত ভাবেই. এই রকমের একটি ব্যবস্থা হতে পারে বিশ্বের জলবায়ু পরিষেবার ব্যবস্থা করা. এখনই তা বিশ্বের বহু দেশে সৃষ্টি করা হচ্ছে, তার মধ্যে রাশিয়াও রয়েছে. এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল রাষ্ট্রসংঘ আয়োজিত বিশ্ব পরিবেশ সংরক্ষণ সম্মেলনে. এই ব্যবস্থা অনেক গুলি পরিবেশ সংক্রান্ত জিনিস দেবে. এই ব্যবহার যোগ্য আবহাওয়া বিজ্ঞানের তথ্য থেকে বিভিন্ন জায়গার খুঁটিয়ে লেখা পারিবেশিক মানচিত্র আজ সমস্ত ধরনের অর্থনৈতিক বিভাগেই ব্যবহার করা হচ্ছে, গৃহ নির্মাণ থেকে রাস্তা তৈরী ও বিভিন্ন শক্তি সরবরাহ ব্যবস্থা থেকে বাড়ী ঘরের রক্ষণাবেক্ষণ, ব্রিজ ও পাইপ লাইন সংরক্ষণের ব্যবস্থাতে.দুঃখের বিষয় হল, এখনও বহু জায়গায় শুধু শিল্প স্থাপনেই নয়, এমনকি শহর ও জন বসতি নির্মাণেও পারিবেশিক বহু বাধা নিষেধ মানা হচ্ছে না, আর এটা একটা ট্র্যাজেডির কারণ হচ্ছে – যেমন, বিরাট এলাকা জলে ডুবে যাচ্ছে. নতুন বিশ্ব পরিবেশ পরিষেবা ব্যবস্থা বর্তমানে তথ্য সংগ্রহ এবং তার বিশ্লেষণ ও সংযোজনে ব্যস্ত আছে, এই তথ্য ভবিষ্যতে এই ধরনের বিপর্যয়ের হাত থেকে মানব সমাজকে রেহাই পেতে সাহায্য করবে.