রাশিয়ার প্রশাসন ঘোষণা করেছে যে, এই নিষেধ সাময়িক ও তা করতে হয়েছে বাধ্য হয়ে. এটা করা হয়েছে দেশের আভ্যন্তরীন বাজারে শষ্যের দাম বেড়ে যাওয়া কমাবার জন্য. প্রাকৃতিক বিপর্যয়, বন্যা ও দাবানল – যা এই গরমে ইউরোপ ও রাশিয়াতে প্রবল আকারে হয়েছে, তা রাশিয়াতে একের তৃতীয়াংশ ফসল নষ্ট করে দিয়েছে. শুধু গমই নয়, ভুট্টা, জোয়ার, বাজরা, সাবু কোন কিছুই বাইরে পাঠানো যাবে না, এমন কি ময়দা হলেও. ৩১শে ডিসেম্বর পর্যন্ত এই নিষেধ জারি হল, তবে অক্টোবরে সরকার সমস্ত ফসল তোলা শেষ হলে দেশের সমস্ত ভান্ডার খতিয়ে দেখবে, বাড়তি কিছু হয়েছে কি না যা বাইরে পাঠাতে দেওয়া যেতে পারে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় সংঘ এবং কানাডার পরে রাশিয়া বিশ্বের চতুর্থ বড় শষ্য রপ্তানী কারক দেশ.