ভারত প্রচেষ্টা চালাচ্ছে, যাতে হিন্দি ভাষা রাষ্ট্রসঙ্ঘের সরকারী ভাষা হয়ে ওঠে. এ সম্বন্ধে আজ জানিয়েছেন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শ্রী এস.এম.কৃষ্ণ. তাঁর কথায়, এ উদ্দেশ্যে তাঁর সভাপতিত্বে গঠিত হয়েছে সরকারী কমিশন. আজ ভারতের পার্লামেন্টে বক্তৃতা দিয়ে তিনি জোর দিয়ে বলেন, আমরা চাই, হিন্দি যেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের সরকারী ভাষাগুলির তালিকার অন্তর্ভুক্ত হয় এবং আমরা এ জন্য সরকারী প্রস্তার তৈরি করছি, যা রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলির বিবেচনার জন্য পেশ করা হবে. তাঁর কথায়, বর্তমানে সরকার হিন্দিতে সাপ্তাহিক রেডিও সম্প্রচার শুরু করার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করছে, যা ইন্টারনেটে রাষ্ট্রসঙ্ঘের ওয়েব-সাইটে প্রচারিত হবে. বর্তমানে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সরকারী ভাষাগুলির মধ্যে আছে রুশী, ইংরেজী, স্প্যানিশ, চীনা, আরবী ও ফরাসী. এ সব ভাষাতেই ছাপা হয় রাষ্ট্রসঙ্ঘের প্রধান প্রধান দলিল, সেই সঙ্গে সিদ্ধান্তবলিও.