রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের বাধানিষেধের তালিকা থেকে "তালিবান" আন্দোলন এবং "আল-কাইদা" সন্ত্রাসবাদী সংস্থার ৪৫ জন প্রতিনিধিকে বাদ দেওয়া হয়েছে. এ সম্বন্ধে সোমবার জানিয়েছেন "তালিবান" ও "আল-কাইদার" বিরুদ্ধে বাধানিষেধ সংক্রান্ত রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের কমিটির নেতা, রাষ্ট্রসঙ্ঘে অস্ট্রিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি টমাস মায়ার হার্টিং. গত সপ্তাহে তালিকাভুক্ত ব্যক্তি ও সংস্থার বিরুদ্ধে বাধানিষেধ পালন পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত কমিটি এ তালিকার সর্বাত্মক সমীক্ষা করেছে. তালিকার ৪৮৮টি নাম পরীক্ষার ফলে "তালিবান আন্দোলনের" ১০ জন প্রতিনিধি এবং "আল-কাইদার" সাথে সম্পর্ক থাকা আরও ৩৫ জন ব্যক্তি ও কোম্পানির নাম তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়. হার্টিংয়ের কথায়, আটজন, যাদের নাম তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে, ইতিমধ্যে মারা গেছে.আরও ৩০ জন নিহত বলে বিবেচনা করা হলেও, এখনও তালিকায় অন্তর্ভুক্ত, কারণ পরিষদের কিছু কিছু সদস্য তাদের মৃত্যুর বিশ্বস্ত প্রমাণ চায়.