ভারত ও গ্রেট-বৃটেন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রামে সহযোগিতা বাড়াতে চায়. এ সম্বন্ধে সাংবাদিকদের বলেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী শ্রীমনমোহন সিং, বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের সাথে আলাপ-আলোচনার পরে মিলিত সাংবাদিক-সম্মেলনে. তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদ আজ বিশ্ব জনসমাজের জন্য মুখ্য বিপদ, আর আমরা এ অমঙ্গলের বিরুদ্ধে সংগ্রামে আমাদের সহযোগিতা গভীর করার ব্যাপারে সমঝোতায় এসেছি. তাছাড়া তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, প্রতিবেশী পাকিস্তানের সরকারের নিজের পশ্চিম ও পূর্ব সীমানা থেকে সন্ত্রাসবাদীদের উচ্ছেদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত. সাংবাদিকরা বৃটিশ প্রধানমন্ত্রীকে মন্তব্য করতে অনুরোধ করেন এর প্রাক্কালে ব্যাঙ্গালোর শহরে তাঁর বিবৃতি সম্পর্কে যাতে তিনি ইস্লামাবাদের কাছে দাবি করেন নিজের ভূভাগ থেকে সন্ত্রাসবাদের রপ্তানী বন্ধ করার. ডেভিড ক্যামেরন উত্তরে বলেন যে, পাকিস্তানের সরকার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে এবং তার আরও বেশি কাজ করা উচিত যাতে সন্ত্রাসবাদের বিপদ কমে আফগানিস্তানে, ভারতে এবং লন্ডনের রাস্তায়. তিনি আরও যোগ করে বলেন যে, চরমপন্থার বিরুদ্ধে সংগ্রামের প্রশ্ন গ্রেট-বৃটেন পাকিস্তানের সাথে খোলাখুলি ও সত্ভাবে আলোচনা করতে প্রস্তুত. এ প্রসঙ্গে ক্যামেরন জানান যে, এ সমস্যাটি পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি আসিফ আলি জারদারীর সাথে আগামী সপ্তাহের জন্য পরিকল্পিত আলাপ-আলোচনার কেন্দ্রস্থলে থাকবে.