ভ্লাদিমির পুতিন নিঝেগোরদ প্রদেশে (ভোলগা অঞ্চলে) পৌঁছেছেন, যেখানে দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে. এ অঞ্চলে পরিস্থিতি গুরুতর উদ্বেগ জাগাচ্ছে, এবং প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় নেতৃবৃন্দের জরুরী বৈঠক আহ্বান করেছেন. অগ্নিকান্ডের কারণ হল আসাধারণ গরম, যা প্রায় একমাস ধরে পড়েছে কেন্দ্রীয় রাশিয়ায় এবং ভোলগা অঞ্চলে. নিঝেগোরদ প্রদেশে বিগত একদিনে আগুন ধ্বংস করেছে দুটি বসতিকেন্দ্র, প্রায় ৫৫০টি বাড়ি পুড়ে গেছে. বাসিন্দাদের তাড়াতাড়ি করে অপসারণ করা হয়েছে, আগুন নেভানোর কাজে অংশ নিচ্ছে বিমান বহর- ইল-৭৬ মার্কা বিমান, বি-২০০ মার্কা অ্যাম্ফিবিয়া বিমান, কাজ করছে ৩টি অগ্নিনির্বাপক ট্রেন. ভরোনেঝ, রিয়াজান, ভ্লাদিমির, ও মস্কো প্রদেশে আগুন নেবানোর জন্য শত শত টন জল ব্যবহৃত হচ্ছে. বিগত একদিনে রাশিয়ায় পুড়ে গেছে প্রায় ৯০০ বাড়ি, আর মারা গেছে ৫ জন. রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ এ বিপর্যয়ের বিরুদ্ধে সংগ্রামে জরুরী ব্যবস্থা গ্রহণের এবং ভুক্তভোগীদের ক্ষতিপুরণ দেওয়ার জন্য অর্থবরাদ্দ করার নির্দেশ দিয়েছেন সরকারকে.