ইস্লামাবাদের উপকন্ঠে বুধবার সকালে স্থানীয় এয়ারব্লু বিমান কোম্পানির এ-৩২১ বিমানের দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে ৪৬ জন যাত্রীর দেহ সনাক্ত করা হয়েছে, জানিয়েছে জিও টিভি টেলিচ্যানেল. বিমানটি করাচী থেকে ইস্লামাবাদ যাচ্ছিল. বিমানটিতে ছিল ১৫২ জন, সেই সঙ্গে ৬ জন কর্মী. অবতরণের অনুমতি পাওয়ার পর অজানা কারণে নিচু মেঘ ও বৃষ্টির পরিবেশে এয়ারবাসটির ধাক্কা লাগে ইস্লামাবাদের উত্তরে মার্গাল্লা পাহাড়ে. সকলেই মারা যায়. নিহতদের মধ্যে ছিল পাকিস্তানের যুব পার্লামেন্ট নামে সামাজিক সংস্থার ছয়জন সক্রিয় কর্মী, মেয়েদের ফুটবল দলের সদস্যা, রাষ্ট্রসঙ্ঘের একজন কর্মীর ছেলে. বিমানে তিনজন যাত্রীর বিদেশী পাসপোর্ট ছিলঃ দুজন মার্কিনী এবং একজন জার্মান নাগরিক. পাকিস্তানের ইতিহাসে এটি ছিল বৃহত্তম বিমান দুর্ঘটনা.