সার্বিয়া আবার কোসোভোর স্বাধীনতা স্বীকার করতে অস্বীকার করেছে, হেগে রাষ্ট্রসঙ্গের আন্তর্জাতিক আদালতের সিদ্ধান্ত সত্ত্বেও. তত্সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে বেলগ্রেডে গণ স্কুপশিনার (পার্লামেন্ট) জরুরী বৈঠক. দলিলে বলা হয়েছে যে, সমস্যার আপোষমূলক মীমাংসা খোঁজা উচিত আলাপ-আলোচনার টেবিলে. গণ প্রতিনিধিরা সরকারের প্রস্তাব সমর্থন করে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলিতে কোসোভোর স্থিতির নতুন আলোচনা অর্জনের জন্য. গত সপ্তাহে হেগে আদালত সিদ্ধান্ত নেয় যে, ২০০৮ সালে কোসোভোর দ্বারা স্বাধীনতা ঘোষণা আন্তর্জাতিক বিধানের মানের পরিপন্থী নয়. বেলগ্রেড এ সিদ্বান্তের সাথে একমত নয়, জোর দিয়ে এ কথা বলে যে সার্বিয়ার ভূভাগীয় অখন্ডতা রাজনৈতিক পদ্ধতিতে অর্জনের জন্য সংগ্রাম করে যাবে.