পাকিস্তান ও ভারতের মাঝে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের প্রক্রিয়ার পুনরারম্ভের বিষয়, দক্ষিণ এশিয়ায় সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রামের প্রশ্ন এবং কাশ্মীর সমস্যা মীমাংসার পরিপ্রেক্ষিত আলোচনা করেছেন দু দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা. কূটনৈতিক উত্স থেকে প্রাপ্ত খবরে প্রকাশ, ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শ্রী এস. এম. কৃষ্ণ এবং পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মহমুদ কুরেশির সাক্ষাতের উদ্দেশ্য ছিল ২০০৮ সালের নভেম্বরে মুম্বাইয়ে সন্ত্রাসবাদী আক্রমণের পরে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক শীতল হওয়ার সময়ের ইতি টানা. প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, আলাপ-আলোচনার গতিতে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন ““লশ্কর-এ-তাইবা দলের সম্পূর্ণ উচ্ছেদের জন্য পাকিস্তানের সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণের প্রয়োজনীয়তার কথা, কারণ এই দলই মুম্বাইয়ে আক্রমণের জন্য দায়ী. পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিজের তরফ থেকে কাশ্মীর সমস্যারঅতি ধীরে মীমাংসা সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেন. ইস্লামাবাদে এ সমস্যার অস্তিত্বকে ভারতের সাথে সম্পর্কের আরও উন্নতির পথে প্রধান বাধা বলে মনে করা হচ্ছে.