রাশিয়া কষ্টে ভুগছে গরমে. পূর্বাভাষ অনুযায়ী, দেশের কেন্দ্রীয় অঞ্চলের বেশির ভাগ জায়গায় তাপমাত্রা উঠবে ৩৮ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত. প্রত্যক্ষ অর্থে, রাশিয়ায় সবচেয়ে গরম জায়গা হল- কেন্দ্রীয় ও দক্ষিণাঞ্চল. অনাবৃষ্টির জন্য দেশের আরও দুটি অঙ্গে জরুরী অবস্থা প্রবর্তনের পরিকল্পনা আছে. বর্তমানে তা বলবত্ আছে ১৬টি অঞ্চলে. ভীষণ গরম পৌঁছেছে এমনকি ইয়াকুতিয়া পর্যন্তও, আগামী তিন দিনে সেখানে বায়ুর তাপমাত্রা থাকবে প্লাস ৩৫ ডিগ্রি পর্যন্ত. তবে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি কষ্ট পাচ্ছে ককেশাসের দাগেস্তান প্রজাতন্ত্র. সেখানে তাপমাত্রা ৪৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড. ৪০-এর উপরে তাপমাত্রা রয়েছে ক্রাস্নোদার অঞ্চলে. রস্তোভে এবং আস্ত্রাখান প্রদেশে. আস্ত্রাখানে গরমের জন্য বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্রগুলি চাপ সহ্য করতে পারছে না. আস্ত্রাখানে লোকেদের ফ্ল্যাটে এবং প্রতিষ্ঠানগুলিতে এয়ার-কন্ডিশনার এবং ফ্যান প্রকৃতপক্ষে সারা দিনরাত চলছে. বিদ্যুতের লাইনে চাপ বেড়েছে ২-৩ গুণ. একই সমস্যা প্রতিবেশী ভোলগাগ্রাদ প্রদেশে. বসন্তকালের তুলনায় ভোলগা নদীতে জলের মান নেমে গেছে দু মিটারের উপর. কৃষি ক্ষেত্রের কর্মীরা বলছে যে, এরকম গরমে জলসেচনে ক্রমাগত বাধা পড়ার জন্য ফসল বাঁচানো সম্ভব হবে বলে মনে হয় না. বৈকালের পূর্বাঞ্চলেও লোকে অধীর হয়ে অপেক্ষা করছে বৃষ্টির. বসন্তকাল থেকে সেখানে বৃষ্টি হয় নি. মৃত্তিকায় আর্দ্রতার অভাব সঙ্কটজনক মান পর্যন্ত পৌঁছেছে. গমের চারার শিকড় পর্যন্ত সব পুড়ে গেছে.