ভারতের পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান সোমানাহল্লি মালাইয়া কৃষ্ণ ১৪ থেকে ১৬ই জুলাই পাকিস্থানে সফরে যাচ্ছেন. ২০০৮ সালের মুম্বাই হামলার পর দ্বিপাক্ষিক আলোচনা স্তব্ধ হয়ে যাওয়ার পর দুই দেশের প্রধান মন্ত্রীদের উদ্যোগে গত এপ্রিল মাসে আবার সম্পর্ক স্বাভাবিক করার প্রচেষ্টা চালু হয়েছে. ইসলামাবাদে আগামী অধিবেশনে দুই পক্ষই নির্ধারণ করবে পারস্পরিক সম্পর্কের মধ্যে বিশ্বাস কি করে পুনঃ স্থাপন করতে পারা যায়. ভারতের প্রাক্তন উপ পররাষ্ট্র মন্ত্রী ললিত মানসিংহ রিয়া নোভস্তি সংস্থাকে বলেছেন যে, জুলাই মাসের বৈঠকে দুই পক্ষ ঠিক করবে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে আলোচনার পদ্ধতির কাঠামো, কারণ গত দশ বছরের আলোচনাতেও দুই দেশের মধ্যে বিরোধের কারণ সমাধান হয় নি. ২০০৮ সালে স্তব্ধ হয়ে যাওয়া আলোচনার মূল বিষয় ছিল শান্তি স্থাপনের জন্য কি করা দরকার, নিরাপত্তা ও বিশ্বাস যোগ্যতা অর্জনের পথ, জম্মু ও কাশ্মীর অঞ্চলের সীমানা সমস্যা, সিয়াচেন গ্লেসিয়ার ও আরব সাগরের সীর উপসাগরের সীমানা নিয়ে বিতর্ক, সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে সংগ্রাম এবং মাদক পাচার নিরোধ, অর্থনৈতিক ও বাণিজ্য সম্পর্ক পুনরুদ্ধার, দুই দেশের নাগরিকদের স্বাধীন ভাবে সীমান্ত পারাপার.