রাশিয়ার তিনটি নৌবাহিনী- প্রশান্ত মহাসাগরীয়, উত্তর সাগরীয় ও কৃষ্ণসাগরীয় নৌবাহিনীর জাহাজগুলি বুধবার জাপান সাগরে বের হয়েছে, ভস্তোক-২০১০ নামে শুরু হওয়া ব্যাপক পরিসরের অপারেটিভ-স্ট্র্যাটেজিক সামরিক মহড়ার কাঠামোতে মিলিত অনুশীলন পরিচালনার জন্য. মঙ্গলবার, ২৯শে জুলাই দূর প্রাচ্য ও সাইবেরিয়া সামরিক অঞ্চলের ভূভাগে শুরু হয়েছে ভস্তোক-২০১০ নামে ব্যাপক পরিসরের অপারেটিভ-স্ট্র্যাটেজিক মহড়া, যা ২০১০ শিক্ষাবর্ষে রাশিয়ার গোটা সশস্ত্র বাহিনীর সামরিক প্রস্তুতির জন্য একটি মুখ্য ঘটনা হয়ে উঠবে. বুধবার প্রিমোরিয়ে অঞ্চলে মহড়ায় যোগ দিয়েছে রাশিয়ার প্রশান্ত মহাসাগরীয়, উত্তর সাগরীয় ও কৃষ্ণসাগরীয় নৌবাহিনীর জাহাজগুলি. মহড়া শেষ হবে ৮ই জুলাই. এ মহড়ার বিভিন্ন পর্যায়ে দূর প্রাচ্যের চাঁদমারিগুলিতে পরিচালিত হবে পরস্পরের সাথে সম্পর্ক না থাকা বিভিন্ন ধরণের রণকৌশলীয় অনুশীলন, যাতে থাকবে সামরিক গোলাগুলি বর্ষণ, বিশাল দূরত্বে বাহিনী নিয়ে যাওয়া, যার উদ্দেশ্য হল অপরিচিত ও দুর্গম এলাকায় আভ্যন্তরীন সামরিক সঙ্ঘর্ষ সীমিত করা (উচ্ছেদ করা). পরিকল্পনা অনুযায়ী এ মহড়ায় যোগ দেবে ২০ হাজার পর্যন্ত সৈনিক. ৭০টি পর্যন্ত বিমান, আড়াই হাজার অস্ত্রসজ্জা, সাঁজোয়া ও বিশেষ প্রযুক্তি, ৩০টিরও বেশি জাহাজ.