কিরগিজিয়ার নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করেছে যে, শতকরা ৯০ ভাগের বেশী কিরগিজিয়ার অধিবাসী নতুন সংবিধানের পক্ষে ভোট দিয়েছেন ও রোজা ওতুনবায়েভা কে ২০১১ সালের শেষ অবধি রাষ্ট্রপতি পদে থাকার জন্য ক্ষমতা অর্পণ করেছেন. রবিবারে দেশে এই প্রশ্নগুলি নিয়ে সাধারন ভোট গ্রহণ করা হয়েছিল, এর গণনা কার্য শেষ অবধি হওয়ার পর থেকে দেশে পার্লামেন্ট শাসন চালু হবে. রবিবার সন্ধ্যা বেলায় ওতুনবায়েভা ঘোষণা করেছেন যে, কিছুদিনের মধ্যেই বর্তমানের সাময়িক প্রশাসনের সমস্ত নেতারা ইস্তফা দেবেন ও আগামী হেমন্তে পার্লামেন্ট নির্বাচনের জন্য তৈরী হবেন. আপাততঃ তাঁরা বিশেষ এক সম্মেলনের সদস্য হিসাবে থাকবেন, যে সম্মেলন সাময়িক ভাবে পার্লামেন্টের সদস্যদের জায়গায় থাকবে. একই ভাবে সাময়িক মন্ত্রীসভাও তৈরী করা হবে.