ভারতের উপকূল সীমান্ত রক্ষী বাহিনী একটি রাষ্ট্রসংঘের মাল বাহী জাহাজ আটক করেছে বলে ইসলামাবাদ থেকে অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়েছে বলে সোমবার দেশের পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রতিনিধি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন. এর আগে ভারতের সংবাদ সংস্থারা জানিয়েছিল যে, মালবাহী জাহাজ এজিয়ান গ্লোরি ভাড়া করা হয়েছিল লাইবেরিয়াতে বহুদেশীয় রাষ্ট্রসংঘের শান্তি রক্ষী বাহিনীর জন্য সামরিক যন্ত্রপাতি বহন করে নিয়ে যাওয়ার জন্য. জাহাজে বাংলাদেশ নেপাল ও পাকিস্থানের সেনাবাহিনীর রসদ ছিল. এই জাহাজের শেষ বন্দর হিসাবে নাম ছিল করাচী বন্দরের, ভারতীয় শুল্ক বিভাগের কর্মীদের সন্দেহের কারণ হয় যে, জাহাজে ঠিক ভাবে দলিল পত্র না করা অস্ত্র এবং জাহাজের শেষ বন্দর হিসাবে নাম পাকিস্থান হওয়া. ভারতীয় প্রতিরক্ষা বিভাগ যে জাহাজ টিকে আটক করেছে, সেটি এর আগে বাংলাদেশে কিছু মাল নামিয়ে দিয়ে কলকাতা বন্দরের দিকে যাচ্ছিল নেপালের সেনা বাহিনীর জন্য মাল নামাতে. ভারত সরকার নিউইয়র্কে রাষ্ট্রসংঘের প্রধান দপ্তরের কাছে জানতে চেয়েছে এই জাহাজটি সরকারি ভাবে রাষ্ট্রসংঘের মাল নিয়ে যাচ্ছিল কিনা এবং বর্তমানে প্রশাসনিক উত্তরের অপেক্ষা করছে.