ইস্তামবুলে আজ থেকে শুরু হওয়া এশিয়ায় পারস্পরিক সহযোগিতা ও বিশ্বস্ততা সংস্থার সম্মেলনে(এমআইটিএমএ)নিরাপত্তা ও অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা করা হবে.এশিয়া মহাদেশের দেশগুলোর মাঝে রাজনৈতিক ও ব্যাবসা বানিজ্য সম্পর্ক প্রসারিত করাও এই সম্মেলনের মূল আলোচ্য বিষয়.আজকে এমআইটিএমএ ভুক্ত দেশসমূহের মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক শুরু হবে.সম্মেলনের প্রধান কার্যক্রম শুরু হবে মঙ্গলবার,৮ জুন.অংশগ্রহনকারি দেশসমূহের রাষ্ট্রপ্রধানরা তখন উপস্থিত থাকবেন.রাশিয়ার প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে থাকবেন প্রধানমন্ত্রী ব্লাদিমীর পুতিন.ঐ দিনের বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে প্রধান যে বিষয়টি হবে তা হল এমআইটিএমএর মহাসচিবের দায়িত্বভার কাজাকিস্তান থেকে তুরষ্ককে হস্তান্তর.এছাড়া কাজাকিস্তানের রাষ্ট্রপ্রধান নুরসুলতান নাজারবায়েব আশা করছেন যে সম্মেলনে আজারবাইজান,ইরান,আপগানিস্তান,অন্যান্য দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা এবং ফিলিস্তানি নেতা মাহামুদ আব্বাস উপস্থিত থাকবেন.তার আগমন সম্পর্কযুক্ত ,প্রথন ধাপেই ,কয়েকদিন আগেই ইজরাইলি সৈন্য কর্তৃক মানবিক সাহায্য নিয়ে গাজামুখী জাহাজ স্বাধীন ফ্লোটিলে হামলার বিষয়টি.এদিকে সংবাদপত্র "জামান" থেকে জানা যায় যে, এই ঘটনার পর তুরষ্কের প্রধানমন্ত্রী তাইপ এরদোগান বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সাথে নিজেদের মতামত বিষয়ে আলোচনা করেছেন.

মঙ্গলবারের ঐ সম্মেলনে একই সাথে ইরানের ইউরিনিয়াম প্রশ্ন,ইরাক পরিস্থিতি ও মধ্যপ্রাচ্যের অমিমাংশিত বিষয়বলী সমাধানের দিকে এগিয়ে নিয়ো যাওয়া.