প্রতিবছর ৫জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবস হিসাবে পালন করা হয়.তবে ২০০৭ সন থেকে রাশিয়াতে এই দিনটি একই সাথে জীববৈচিত্র্য দিন যা প্রতিটি প্রকৃতিপ্রেমী মানুষ ও জীবজগত রক্ষাকরীদের পেশাগত উত্সবের দিন বলে গন্য করা হয়.বিশ্ব পরিবেশ দিবসের এই দিনটি বেশিরভাগ রুশিরা তাদের গ্রামের বাড়ীতে কাটায়.সেখানে বাতাস বিশুদ্ধ ও পরিবেশ অনেক ভাল.পরিবেশের এই বিষয়টি অনেক আগ থেকেই রুশিদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হিসাবে ধরা হয়.আমরা অনেক বেশী গুরুত্ব দিয়ে থাকে পানির বিষয়,যা আমরা পান করি;বাতাস ,যা আমরা নিঃশ্বাষে গ্রহন করি;খাদ্যদ্রব্য যা আমরা খাই.সামাজিক গবেষকরা জরিপে দেখেছেন যে,পরিবেশ সংক্রান্ত বিষয়ে রুশিদের চাহিদা অনেক বেশী.সবার আগে নিজের বসবাসের চারপাশে পরিবেশই হতে হবে উত্তম,মনে করেন পরিবেশ রক্ষায় সার্বজনীন বিশ্ব সংস্থা(ডব্লিউডব্লিউএফ)এর রাশির প্রতিনিধি ইবগেনী শবারেছ.তিনি বলেন,যদি সামাজিক গবেষকদের জরিপের দিকে তাকানো হয় তাহলে দেখা যায় যে,জীববৈচিত্র্য কখনই প্রথম পাঁচটি সমস্যা থেকে বের হতে পারেনি,আর এই সমস্যবলী নিয়ে রুশীরা সবথেকে বেশী শংকিত.আমাদের সময় আমরা সাইবেরিয়ার বেশ কয়েকটি ছেট ছোট শহরে জরিপ পরিচালনা করেছিলাম এবং ক্রাসনাইয়ার্ক,হাকাসিও ও আলতাই প্রজাতন্ত্রের সাথে পরিবেশগত তুলনা করেছি.ক্রাসনাইয়ার্ক ও হাকাসিয়া এই দুটি জেলা অর্থনৈতিক সবলাতার দিক থেকে বেশী এগিয়ে.সেখানের স্থায়ী নিবাসীদের মধ্যে ১৩ ভাগ একমত প্রকাশ করে যে,অর্থনৈতীক উন্নয়নের জন্য পরিবেশগত সমস্যা সমাধান করা জরুরি.গোরনা-আলতাইয়ের অধিবাসীরা দৃড়তার সাথে জানায় যে,অর্থনৈতীক সমৃদ্ধির জন্য পরিবেশ অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে.তবে আলতায়ের ২৮ ভাগ এলাকা যা সংরক্ষিত প্রাকৃতিক পরিবেশ.বিগত বিছরগুলোতে রাশিয়ার বিভিন্ন শহরে প্রাকৃতিক পরিবেশ সংক্রান্ত ও বিশ্ব পরিবেশের অবস্থা বিষয়ে গুরুত্বরূর্ণ কিছু কাজ করা হয়েছে.একই সাথে এর পাশাপাশি পরিবেশ সংরক্ষন সংক্রান্ত বিধি নিষেধের অনেক পরিবর্তন আনা হয়েছে.এছাড়া রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ আগামী ২০২০ সালের মধ্যে রাশিয়ার অর্থনীতিতে জৈব জ্বালানীর মাত্রা ৪০ ভাগ বৃদ্ধির মাত্রা ধার্য করেন.এ সব কিছুই পরিবেশ উন্নয়ন যা রাশিার অর্থনৈতিক যা সামগ্রিকভাবে রাশিয়ার উন্নয়নে কাজে আসবে.আর তা বিশ্ব পরিবেশ সংরক্ষনে বিশেষ অবদান রাখবে,মনে করেন  রাশিয়ায় জাতিসংঘের ইভেন্ট উন্নয়ন প্রতিনিধি ফ্রদে মাউরিনগ.তিনি বলেন,রাশিয়াতে পরিবেশ রাজনীতি ধারা রয়েছে এবং আমরা বিষয়টিকে সমর্থন জানাই.একন সময় এসেছে কর্যকরভাবে এই সমস্যার সুষ্ঠ সমাধানের .আর তা কিছুটা জটিল কাজ,বিশেষকরে এই ক্ষেত্রে দরকার প্রচুর অর্থনৈতিক সহযোগিতা.আশা করছি এসবের সন্তষজনক সমাধান হবে.বিশ্ব পরিবেশ উন্নয়নে বিশেষ কিছু পদক্ষেপে রাশিয়ার অবদানকে  আমরা স্বাগতম জানাই.বিশেষজ্ঞরা এই বিষয়ে জানায় যে,বিগত সময়ে ব্যাবসা-বানিজ্যের সাথে পরিবেশগত সমস্যার সম্পর্কে পরিবর্তন এসেছে.বিশেষত সবুজ প্রযুক্তি রাশিয়ার প্রতিযোগিতামূলক বাজারে নিজেদের সুবিধাজনক অস্তিত্ব দেখতে পাচ্ছে.