লাভরভ ও ক্লিন্টন ফোনে ইরানের পারমানবিক পরিকল্পনা ঘিরে পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছেন এবং সেই দেশের অনুসন্ধানের রিয়্যাক্টরের জন্য প্রয়োজনীয় জ্বালানী সরবরাহ নিয়ে কথা বলেছেন. আজ এই বিষয়ে রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তর জানিয়েছে, এই আলোচনাতে কয়েকটি আন্তর্জাতিক ও দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়েও কথা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে.