আফগানিস্থানের পরিস্থিতি শান্ত করার উপায় – মাদক পাচারের মোকাবিলা. এই দিকে সাফল্যকে বহু বিশেষজ্ঞ মনে করেছেন অন্য অনেক সমস্যার সমাধান করতে কাজে লাগবে যেমন, দুর্নীতি, সন্ত্রাসবাদএই অঞ্চলে সব মিলিয়ে শান্তি আনার প্রচেষ্টা.    বিভিন্ন দেশের সরকার সমস্যার সমাধানে পথ খুঁজছেন আর তাই বিশ্বাস করতে ইচ্ছা হয় যে, ৯ই জুন মস্কোতে "আফগানিস্থানের মাদক উত্পাদন – বিশ্ব সমাজকে হুমকি" নামে যে সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে তাতে একটা সঠিক কাজের কাঠামো খুঁজে পাওয়া যাবে. তাতে রাষ্ট্রসংঘ, ন্যাটো ও যৌথ নিরাপত্তা সংস্থার দেশ গুলি অংশ নেবে. এই সম্মেলনের আগে রাশিয়ার বিশেষজ্ঞরা আফগানিস্থানের মাদক সংক্রান্ত রাজনীতির কানা গলি থেকে বেরোনোর বিভিন্ন উপায় নিজেদের পক্ষ থেকে প্রস্তাব করেছেন.    আফগান বিশেষজ্ঞ এবং জন সংখ্যা পরিসংখ্যান ইনস্টিটিউটের পর্যবেক্ষক পরিষদের প্রেসিডেন্ট ইউরি ক্রুপনভ মনে করেন যে, আফগানিস্থানের মাদক দ্রব্য পাচারের পথ বন্ধ করতে বিশেষ সংস্থা তৈরী করার দরকার, যারা এই দেশের আফিমের চাষ ধ্বংস করার কাজ করবে, তিনি বলেছেন:    "রাশিয়া আফগান মাদক উত্পাদন ধ্বংস করার পরিকল্পনা পেশ করেছে, যা ২৩শে মার্চ ব্রাসেলসে ন্যাটো সংস্থার মূল দপ্তরে রাশিয়ার জাতীয় মাদক কারবার নিয়ন্ত্রণ সংস্থার ডিরেক্টর ও জাতীয় মাদক নিরোধ পরিষদের প্রেসিডেন্ট ভিক্তর ইভানভ প্রস্তাব করেছেন. এই পরিকল্পনাতে বিশ্ব সমাজকে আফগানিস্থানের মাদক উত্পাদন বন্ধ করার বাস্তব পদক্ষেপের কথা বলা হয়েছে. অংশতঃ মনোযোগ দেওয়া উচিত্ হবে সেই সমস্ত বিশেষ অনুসন্ধানের ফলের উপরে, যেখানে জমির মানচিত্র তৈরী করে সঠিক ভৌগলিক অবস্থান নিরুপণ করে দেখানো হয়েছে যে, আফগানিস্থানে কাদের জমিতে আফিমের চাষ করা হচ্ছে, তার ফলে আমরা জানতে পারব কারা এই জমির মালিক এবং মাদকের বড় ব্যবসায়ীদের খবর পাওয়া যাবে".     মস্কোর আন্তর্জাতিক আইন একাডেমীর আন্তর্জাতিক আইন বিভাগের লেকচারার ইয়ারোস্লাভ কোঝুরভ মনে করেন যে, মাদক পাচারের কঠিন পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে হলে নানা দেশের সম্মিলিত বিচার সভার আয়োজন করতে হবে, যেখানে এই সব বড় মাদক ব্যবসায়ীদের বিচার করা যাবে, তিনি আরও বলেছেন:    "আমাদের অতীতে কম্বোডিয়া, বসনিয়া, সিয়েরা লিওনে, লেবানন পূর্ব টিমোর দেশ গুলির ক্ষেত্রে বিচারের জন্য আয়োজিত আন্তর্জাতিক ও স্থানীয় বিচারকদের সম্মিলিত আদালতের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানো দরকার. এই আদালত দেশের বিচার ব্যবস্থার মধ্যে থাকে না, কিন্তু সম্পূর্ণ ভাবে একে আন্তর্জাতিকও বলা যেতে পারে না. তাই উচিত্ হবে রাজনৈতিক, কূটনৈতিক ও আইন সঙ্গত ভাবে দেশ গুলির সঙ্গে এই রকম শঙ্কর আদালত তৈরী করার বিষয়ে একটা সমঝোতায় আসা, যারা মাদক পাচারের বিষয়ে সমস্যায় রয়েছে".    বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে, মাদক পাচারের মোকাবিলা একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ, যা বিশ্বের সমাজ সমাধান করতে বাধ্য. আর যত দ্রুত তা হবে, ততই ভাল. তাই বর্তমানে আফগানিস্থানের পরিস্থিতি সত্যই অচল. এই ব্যাধি, যা আজ দেশের সীমানা পার হয়ে প্রসারিত হচ্ছে. কিন্তু তার থেকে সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে রাশিয়া ও ইউরোপ, যারা বিশ্বের মানচিত্রে এই "মাদক বিন্দু"র সব থেকে কাছে রয়েছে.