আফগানিস্তানে এই প্রথম এখন ইরাকের চেয়ে বেশি মার্কিনী সৈনিক লড়াই করছে, জানিয়েছে পেন্টাগন এবং উল্লেখ করেছে য়ে, আফগানিস্তানে এখন রয়েছে ৯৪ হাজার মার্কিনী সৈনিক, আর ইরাকে- ৯২ হাজার. হোয়াইট হাউজের বর্তমান কর্তা, তাঁর আগের রাষ্ট্রপতি জর্জ বুশের চেয়ে পার্থক্যে, মনে করেন যে, ইরাক নয়, আফগানিস্তানই বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সংগ্রামে মুখ্য ফ্রন্ট. গত বছরের জানুয়ারীতে রাষ্ট্রপতি হয়ে বারাক ওবামা আফগানিস্তানে সৈন্য সংখ্যা বৃদ্ধির নির্দেশ দেন, এবং তাদের জন্য কংগ্রেসের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ বরাদ্দের দাবি করেন. গ্রীষ্মের শেষ নাগাদ সেখানে মার্কিনী সৈনিকদের সংখ্যা হবে  ১ লক্ষ ২ হাজার. ইরাকে, যেখানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ২০০৩ সালের মার্চে অনুপ্রবেশ করেছিল, এখন সৈন্য সংখ্যা কমানো হচ্ছেঃ শীতকাল নাগাদ সেখানে থাকবে প্রায় ৪৩ হাজার সৈনিক. আফগানিস্তানে যুদ্ধ চালাতে পেন্টাগনের মাসিক খরচ ফেব্রুয়ারী মাসেই ইরাকের চেয়ে বেশি হয়েছে- তা ছিল যথাক্রমে ৬৭০ কোটি ডলার এবং ৫৫০ কোটি ডলার.