থাইল্যান্ডের সরকার ব্যাংককে এবং ১৬টি প্রদেশে জরুরী অবস্থা জারি করেছে. প্রধানমন্ত্রী অফিসিত ভেতচাচিভা ঘোষণা করেন যে, বিরোধীপক্ষ সরকারবিরোধী আন্দোলন বন্ধ করা সংক্রান্ত চরম দাবি উপেক্ষা করেছে. প্রচার মাধ্যমের কাজ সীমিত করা হয়েছে, সামাজিক স্থলে পাঁচজনের বেশি লোকের সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে. থাইল্যান্ডে রাজনৈতিক উত্তেজনা তীব্র হয়ে ওঠে এ বছরের মার্চে. ব্যাংককের কারবারী কেন্দ্র দখল করে নেয় বিরোধীপক্ষের প্রতিনিধিরা, তারা সরকারের পদত্যাগ এবং প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী টাকসিন ছিনাওয়াটার প্রত্যাবর্তনের দাবি করে. পুলিশের সাথে সঙ্ঘর্ষে নিহত হয় ২৯ জন, প্রায় ১৫০০ জন আহত হয়েছে.