পিতৃভূমির মহাযুদ্ধের প্রধান শিক্ষা হল শান্তি বিপন্ন হওয়ার ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক জনসমাজের প্রচেষ্টা মিলিত করা. এ সিদ্ধান্তে এসেছেন ভারতে মহান বিজয়ের ৬৫তম বার্ষিকীর প্রতি উত্সর্গীত সেমিনারের অংশগ্রহণকারীরা. এ সেমিনার আয়োজিত হয়েছিল নয়া-দিল্লিতে রাশিয়ার বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি কেন্দ্রে. ক্ষমতাসীন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস পার্টির সেক্রেটারি দলবীর সিং নিজের বক্তৃতায় জোর দিয়ে বলেন যে, ফ্যাসীবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রামে সোভিয়েত ইউনিয়ন যে ক্ষতি বহন করেছে ভারত তা মনে রেখেছে এবং এ যুদ্ধে নিহতদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে. তিনি বলেন, ভারতীয় জনগণের জন্য এ যুদ্ধে ২ কোটি ৬০ লক্ষ সোভিয়েত নাগরিকের মৃত্যু- এ শুধু সংখ্যা নয়, এ হল অপুরণীয় ক্ষতি, শোক এবং বীরকীর্তি, যার সামনে ভারতীয়রা মাথা নত করে. ভারতীয় পার্লামেন্টের বিশিষ্ট প্রতিনিধি শ্রী অবনী রায় উল্লেখ করেন যে, সোভিয়েত ইউনিয়ন না থাকলে বর্তমান পৃথিবী অন্যরকম হত.