২২শে এপ্রিল ব্যাংককে মেট্রো রেলপথে বিস্ফোরণে হতাহতদের সঠিক করা তথ্য প্রকাশিত হয়েছে থাইল্যান্ডে. মারা গেছে ২৬ বছর বয়সী এক মহিলা, ৮৬ জন আহত হয়েছে. দশ জনের অবস্থা সঙ্কটজনক বলে মূল্যায়ন করা হচ্ছে. আহতদের মধ্যে আছে তিন জন বিদেশী- অস্ট্রেলিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও জাপানের নাগরিক. আগে জানানো হয়েছিল যে, তিন জন নিহত হয়েছে. পুলিশ নির্ধারণ করেছে যে, গ্রেনেড বর্ষণ করা হয়েছিল স্টেশনে ঢোকার মুখের উল্টোদিকের পার্ক থেকে. বর্ষণ করা গ্রেনেড গিয়ে পড়ে প্ল্যাটফর্মে, যেখানে যাত্রীরা ট্রেন আসার অপেক্ষা করছিল. এ ঘটনা প্ররোচিত করেছিল ব্যাংককের বাসিন্দা ও সরকারপক্ষের সক্রিয় কর্মী এবং লাল-জামাওলাদের মাঝে সঙ্ঘর্ষ. বিরোধীরা- উত্খাত প্রধানমন্ত্রী তাকসিন চিনাওয়াতার পক্ষসমর্থকরা- মেট্রো স্টেশনে গ্রেনেড বর্ষণে তাদের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছে. সরকারের নেতা অভিসিত ভেতচাচিওয়া ১২ই মার্চ থেকে সবা ও মিছিলকারীদের বিরুদ্ধে আরও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের সম্ভাবনা বিবেচনা করছে. মিছিলকারীরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়া এবং নতুন নির্বাচন নির্ধারণের দাবি করছে.