ভারতের ব্যাঘ্র-অভয়ারণ্য থেকে পর্যটকদের দূরে সরিয়ে দেবে, বুধবার এ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ভারতের প্রতিবেশ ও অরণ্য সংরক্ষণ মন্ত্রী জয়রাম রমেশ. পার্লামেন্টের জন্য মন্ত্রীর লিখিত সংবাদে বলা হয়েছে, এ তথ্য পাওয়া গেছে যে, পর্যটন পরিকাঠামো অভয়ারণ্যে আদি প্রকৃতিতে এবং জীব-জন্তুর চলা-ফেরার পথে জীবন লঙ্ঘন করে. ভারতে বিদ্যমান আছে ৩৮টি ব্যাঘ্র-অভয়ারণ্য. এগুলির চারপাশে স্যানিটারি এলাকা গঠনের, যেখানে মানুষ থাকবে না, এমন পরিকল্পনা সত্ত্বেও বহু অভয়ারণ্যের চারপাশে হোটেল চালু করা হয়েছে, পর্টকদের বন-ভ্রমণের প্রস্তাব করা হচ্ছে. মন্ত্রী মনে করেন, ব্যাঘ্র-অভয়ারণ্যের চারপাশে পর্যটন সক্রিয়তা বিবাদ ও বিপদের নতুন নতুন উত্স হয়ে উঠছে.তিনি জানান যে, মন্ত্রণালয় অভয়ারণ্যের কাছে পর্যটন ব্যবস্থা ধীরে ধীরে গুটিয়ে নেওয়ার বিধি প্রস্তুত করেছে. বাংলার বাঘ, যা ভারতে প্রধাণত রয়েছে অভয়ারণ্যের ভূভাগে, ক্রমশ মরে যাচ্ছে, এ সত্ত্বেও যে, ১৯৭২ সাল থেকে ভারতে কার্যকরী রয়েছে ব্যাঘ্র প্রকল্প নামে এ প্রাণী রক্ষার সমাহারিক কর্মসূচি.