রাশিয়ায় আজ মহাকাশযাত্রা দিবস পালিত হচ্ছে. ১৯৬১ সালে এই দিনই রাশিয়ার মহাকাশচারী ইউরি গাগারিন ভস্তোক মার্কা মহাকাশযানে বাইকোনুর কসমোড্রোম থেকে রওনা হন এবং বিশ্বে প্রথম পৃথিবীর চারপাশে কক্ষপথীয় মহাকাশযাত্রা করেন. মহাকাশে মানুষের এ যাত্রা হয়েছিল ১০৮ মিনিটের. সে সময় থেকে মহাকাশে মহাকাশে যাত্রা করেছেন ৩৬টি দেশের ৫১৪ জন কসমোনট এবং অ্যাস্ট্রোনট. রাশিয়া ও আমেরিকার পরে মহাকাশে যাত্রা করেন ইউরোপীয়রা, আর তারপর এসিয়া, আফ্রিকা ও ল্যাটিন অ্যামেরিকার দেশগুলির প্রতিনিধিরা. তবে মহাকাশের রেকর্ডম্যানদের মধ্যে আগের মতোই রয়েছেন রাশিয়াবসীরা. মহাকাশে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় কাটিয়েছেন মহাকাশচারী সের্গেই ক্রিকালেভ- ৮০৩ দিন এবং প্রায় ১০ ঘন্টা. মেয়েদের মধ্যে প্রথম মহাকাশযাত্রা করেন রাশিয়ার ভালেন্তিনা তেরেশকোভা. সবচেয়ে কমবয়সী মহাকাশচারীও এ দেশের- গের্মান তিতোভ, যিনি ২৬ বছর বয়সে মহাকাশযাত্রা করেন. এ সম্ভাবনাও বাদ দেওয়া যায় না যে, অদূর ভবিষ্যতে পৃথিবীর মানুষ চাঁদে এবং মঙ্গল গ্রহে পা দেবে. যেমন, এপ্রিলের শেষে মস্কোয় শুরু হচ্ছে মঙ্গল গ্রহে যাত্রার অনুকরণ স্বরূপ ৫২০ দিনের পরীক্ষা. কয়েকটি দেশ ইতিমধ্যেই ২০২০ সাল নাগাদ চাঁদে নিজের প্রতিনিধিদের পাঠানোর পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেছে.