রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন বলেছেন যে, রাশিয়া ইরানের পারমাণবিক সমস্যার কূটনৈতিক মীমাংসার পক্ষে মত প্রকাশ করে. তিনি আশা করেন যে, তেহেরানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের নতুন বাধানিষেধমূলক সিদ্ধান্ত গ্রহণ এড়ানো যাবে. রাষ্ট্রসঙ্ঘে চীনের স্থায়ী প্রতিনিধি লি বাওদুন-ও শান্তিপূর্ণ আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার পক্ষে মত প্রকাশ করেছেন. আগে এ সপ্তাহে মার্কিনী পররাষ্ট্র সচিব হিলারী ক্লিন্টন বলেন যে, ষষ্ঠীদেশের সকলেই (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, চীন, ফ্রান্স, গ্রেট-বৃটেন ও জার্মানি) নতুন নতুন বাধানিষেধ আলোচনা করতে প্রস্তুত. পশ্চিমী দেশগুলি ইরানের কাছে দাবি করছে ইউরেনিয়ামের পরিশোধন থামাতে, কারণ মনে করে যে, ইরান পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি করছে. ইরানের কর্তৃপক্ষ এ সব অভিযোগ অস্বীকার করছে এবং নিজের পারমাণবিক কর্মসূচির শান্তিপূর্ণ চরিত্রের কথা ঘোষণা করছে.