রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন আজ উচ্চপদস্থ সামরিক অধিকর্তাদের, সেই সঙ্গে প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও সামরিক সদর দপ্তরের অধিকর্তাকে সমবেত করছেন, যাতে মীমাংসা করা যায় কোন কোন অস্ত্র ব্যবস্থা রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর রূপ গঠন করবে. সরকারের প্রেস-সার্ভিসে জানানো হয়েছে যে, বিগত ছয় মাসে পুতিন প্রতিরক্ষা-শিল্প সমাহারের সমস্যা সম্পর্কে যে একসারি পরামর্শ বৈঠক পরিচালনা করেন, এ বৈঠকে তার খতিয়ান টানা হবে. ঐ সব বৈঠকে সৈন্য বাহিনীকে আধুনিক মানের রকেট-আর্টিলারী, বিমান-, নৌ- ও রণনৈতিক অস্ত্রে সজ্জিত করার পরিপ্রেক্ষিত আলোচিত হয়েছিল, ২০১১-২০২০ সালের জন্য রাষ্ট্রীয় প্রতিরক্ষার ফরমাশের জন্য চাহিদা গঠন করা হয় এবং সামরিক প্রয়োজনের বস্তু উত্পাদকদের একসারি দায়িত্বও দেওয়া হয়েছিল. সরকারে উল্লেখ করা হয় যে, বিশ্ব সঙ্কটের পটভূমিতে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা-শিল্প সমাহার রাষ্ট্রীয় সমর্থনের কল্যাণে ভাল ফলাফলই দেখিয়েছে. গত বছরে প্রতিরক্ষা-শিল্প সমাহারের সংস্থাগুলির দ্বারা উত্পাদিত শিল্প-পণ্যের উত্পাদন বেড়েছিল ৪ শতাংশ, আর সামরিক উত্পাদন- প্রায় ১৩ শতাংশ.