২০০৮ সালের নভেম্বরে বারতের মুম্বাই শহরে সন্ত্রাসবাদী আক্রমণের সময় বেঁচে থাকা একমাত্র অংশগ্রহণকারীর বিরুদ্ধে মামলায় আদালতেশুনানী শেষ হয়েছে.রায় জানানো হবে৩রা মে,সাংবাদিকদের বলেনবিশেষ অভিশংসক উজ্জ্বল নিকাম. অভিযুক্ত – পাকিস্তানবাসী আজমল আমীর কাসাব- দশজনের সন্ত্রাসবাদী দলের অন্তর্ভুক্ত ছিল. সন্ত্রাসবাদীদের ধ্বংস করার অভিযান চলে প্রায় ৬০ ঘন্টা. সাত মাস ধরে শুনানী চলে. এ সময়ে ৬৫৩ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে, বলেন নিকাম. কাসাবের বিরুদ্ধে ১২ ধারায় মামলা রুজু করা হয়, সেই সঙ্গে হত্যা এবং ভারতের বিরুদ্ধে আক্রমণ চালানোরও. তার বিরুদ্ধে অন্তপক্ষে ৭২ জনকে প্রত্যক্ষভাবে হত্যা করার অভিযোগ তোলা হয়েছে. এ সব অপরাধের জন্য কাসাবের মৃত্যুদণ্ড হতে পারে. শুনানী চলে জেলখানার ভবনেই.