এখন অবধি পাওয়া খবর অনুযায়ী মস্কোতে লুবিয়ানকা ও পার্ক কুলতুরি  মেট্রো স্টেশনে বিস্ফোরণের ফলে ঊন চল্লিশ জন নিহত হয়েছেন – রাতে আরও একজন মারা গিয়েছেন. হাসপাতাল গুলিতে ৭০ জনের বেশী আহত রয়েছেন. মস্কোতে আজ শোক দিবস. মস্কো নিহত দের প্রতি শোক প্রকাশ করছে.

     সোমবার ভোর বেলায় সকোলনিকি লাইনের দুটি স্টেশনে চল্লিশ মিনিটের ব্যবধানে দুটি আত্মঘাতী হানায় শহরে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে. বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে, এই ঘটনার সঙ্গে দুজন আত্ম ঘাতিনী জড়িত.

    সন্ধ্যার আগেই সকোলনিকি লাইনে আবার ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে. বিস্ফোরণ ঘটা স্টেশন গুলিতে মস্কোর লোক আসতে শুরু করেছিল, তাঁরা সকলেই এসেছিলেন নিহত দের প্রতি শোক প্রকাশ করতে. এঁদের মধ্যে বেশীর ভাগ লোকই প্রতিদিন এই পথেই কাজে যাতায়াত করেন, লোকে এসেছিলেন তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে যাঁদের জন্য এই দুটো স্টেশন চিরকালের জন্য শেষ স্টেশন হয়ে রইল. অনেকেই চোখের জল থামাতে পারেন নি, লুবিয়ানকা স্টেশনের মাঝখানে যেখানে বিস্ফোরণ হয়েছিল, সেখানে একটা টেবিল পাতা হয়েছিল, লোকে তার উপর ফুল রেখেছিল.

    দিমিত্রি মেদভেদেভ ও এই জায়গায় ফুল রাখতে এসেছিলেন মাটির নীচে মস্কোর মেয়রের সাথে. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি বিশেষ করে বলেছেন এই বিস্ফোরণের সমস্ত পিছনের লোককে খুঁজে বার করা হবে ও ধ্বংস করা হবে, তিনি বলেছেনঃ

    "আমার কোন সন্দেহ নেই যে, আমরা ওদের খুঁজে পাবো এবং সব কটা কে ধ্বংস করবো. যেমন, আমরা যারা নেভস্কি এক্সপ্রেস ট্রেনে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিল, তাদের সবাইকে ধ্বংস করতে পেরেছি, একেবারে পুড়িয়ে ছাই করে দিয়েছি, তেমন করেই. কিন্তু এটাই সব কথা নয়. আমরা যাঁরা চলে গেলেন, তাঁদের তো আর ফেরাতে পারবো না – এটাই সব চেয়ে ভয়ঙ্কর আর আমাদের সবার জন্যই সবচেয়ে কঠিন. তাই আমাদের কাজ হবে – দেশের জনসাধারনকে বোঝানো যে, এই ধরনের অবস্থায় কি রকম করে নিজেকে ঠিক রাখতে হয়. আর অন্য দিক থেকে দেখলে, আমাদের দায়িত্ব সম্পূর্ণ ভাবে পালন করতে হবে – যেমন দেশের কেন্দ্রীয় বিভাগের তরফ থেকে, তেমনই শহরের তরফ থেকে – যাতে পরিবহন ব্যবস্থার উপর আধুনিক ঘোষণা ও নিয়ন্ত্রণের বন্দোবস্ত করা সম্ভব হয়".

    রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন তাঁর ক্রাসনোইয়ারস্ক শহরে সরকারি কাজের সফর থামিয়ে সোমবার সন্ধ্যায় মস্কো ফিরে এসেছেন. এয়ারপোর্ট থেকে সোজা চলে এসেছিলেন বোতকিন হাসপাতালে, যেখানে কিছু আহত ছিলেন. প্রধানমন্ত্রী হাসপাতালের ওয়ার্ড গুলি ঘুরে দেখেন, আহত দের সঙ্গে কথা বলেন এবং হাসপাতালের কর্মী ও আহতদের কাছে জানতে চেয়েছেন প্রয়োজনীয় ওষুধ পত্র ও চিকিত্সার যন্ত্রপাতি আছে কি না? তাঁকে সবাই বলেছেন যে, আহতেরা সম্পূর্ণ ভাবে ভাল হয়ে ওঠা পর্যন্ত পরিষেবা পাবেন, সেরে ওঠার জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা ও ওষুধ আছে, কোন সমস্যা নেই.

    মস্কোতে আজ সরকারি ভবন গুলিতে জাতীয় পতাকা অর্ধ নমিত ভাবে রাখা হয়েছে, সমস্ত আনন্দ অনুষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে. টেলিভিশন ও রেডিওতে সমস্ত আনন্দানুষ্ঠান ও বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধ রাখা হয়েছে.

<sound>