চীন – রাশিয়ার পূর্ণপরিসরের স্ট্র্যাটেজিক শরিক. এ সম্বন্ধে রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন মস্কোয় চীনা গণপ্রজাতন্ত্রের উপসভাপতি সি জিনপিনের সাথে সাক্ষাতে. তাঁর কথায়, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বহু ক্ষেত্রে সক্রিয়ভাবে বিকশিত হচ্ছে. বিশ্ব সঙ্কটের পরিবেশে পণ্য আবর্তন কিছুটা কমা সত্ত্বেও পারস্পরিক পুঁজিনিয়োগ বেড়ে চলেছে. পুতিন জোর দিয়ে বলেন যে, রাশিয়া চীনকে সমর্থন করে সমস্ত স্পর্শশীল সমস্যায়, সেই সঙ্গে তাইওয়ানের সমস্যাতেও, এবং চীনের সাথে সম্পর্ক গড়ে তুলবে সাধারণ স্বার্থের উপর নির্ভর করে. সি জিনপিন গণতান্ত্রিক ও শক্তিশালী রাশিয়াকে আধুনিক বিশ্বব্যবস্থার একটি মেরু বলে অভিহিত করেন. তাঁর কথায়, চীন আগ্রহী যাতে আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক ব্যাপারে সে নিজের ক্ষমতার স্থিতি অনুযায়ী ভূমিকা পালন করে. দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক অভূতপূর্ব উচ্চ মানে রয়েছে, এ কথা উল্লেখ করে সি জিনপিন বলেন যে, চীন এ সম্পর্ককে নিজের পররাষ্ট্র নীতির প্রাধান্য বলে বিবেচনা করে.তিনি দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার প্রশ্ন মিলিতভাবে মীমাংসার জন্য নিজের দেশের প্রস্তুতি প্রকাশ করেন, সেই সঙ্গে বাণিজ্য ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা স্থাপন করেএবং বেআইনী অভিবাসন বন্ধ করে.