রাশিয়া ও ভারতের প্রধানমন্ত্রীরা নিজ নিজ দেশের পক্ষে একসারি গুরুত্বপূর্ণ চুক্তিপত্র স্বাক্ষর করেছেন .ভারত সফররত রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের মাঝে এক দ্বিপাক্ষীক বৈঠকের পর দুই নেতা সংহতিমূলক কাজে ব্যবহারের জন্য পারমানবিক শক্তি ক্ষেত্রে উন্নয়ন ও “দামী কার্ড” নামে আখ্যায়িত করা অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরও বৃদ্ধি বিষয়ে একসাথে কাজ করার ঐক্যমতে পৌছায়.রাশিয়া ভারতে আরও ১২টি পারমানবিক চুল্লি নির্মানে সহায্য করবে.এছাড়া রাশিয়ার রুশ কসমস ও ভারতের মহাকাশ পর্ষবেক্ষন ডিপার্টমেন্টের যৌখ উদ্দোগে গ্লোনাল স্পুতনিক পর্যবেক্ষন করা হবে.রাশিয়া ভারতকে ১.৫ মিলিয়ন ডলার মূল্যের মিগ-২৯কে যুদ্ধবিধ্বংসী বিমান প্রদান করবে.এছাড়া ভারতের নৌবাহিনীকে আধুনিকায়ন করতেও রাশিয়ার পক্ষ থেকে সবধরনের সাহায্য করা হবে.
দিল্লীতে অনুষ্ঠিত যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ভ্লাদিমির পুতিন বলেন,রাশিয়া সর্বদাই ভারতের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নে বদ্ধপরিকর.আমাদের দুটি দেশের মধ্যে বর্তমানে বেশ কয়েকটি প্রকল্প এগিয়ে চলছে.রাশিয়ার সাথে ভারতের রয়েছে দীর্ঘ দিনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক.ভারত রাশিয়াকে অন্যতম বিশ্বস্ত সহযোগি রাষ্ট্র হিসাবে মনে করে.ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের বক্তব্যেই তা ফুটে ওঠেছে.তিনি বলেন,রাশিয়া আমাদের বন্ধুপ্রতিম দেশ,আমাদের রয়েছে দীর্ঘ দিনের কূটনৈতিক সম্পর্ক,তাছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন সংকটময় প্রশ্নে যেমন জঙ্গীবাদ নির্মূলে এবং আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠায় আমাদের দুটি দেশেরই একসাথে কাজ করার মনোভাব রয়েছে.