রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিনের ভারতে এই কর্ম-সফরের সময় মোট ১০০০ কোটি ডলারেরও বেশি অর্থের প্রায় ১৫টি দলিল স্বাক্ষরিত হবে. প্রধান প্রধান দলিল হবে ভারতে  কুদানকুলামে পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্রে এনার্জি-ব্লক নির্মাণে সহযোগিতা সংক্রান্ত চুক্তি, এবং "অ্যাডমিরাল গর্শকোভ" বিমানবাহী জাহাজের আধুনিকীকরণ এবং মিগ-২৯ মার্কা প্রায় ৩০টি ফাইটার বিমান সরবরাহের চুক্তি, সাংবাদিকদের জানিয়েছেন রাশিয়ার সরকারের দপ্তরের উপ-অধিকর্তা ইউরি উশাকোভ. পুতিনের বর্তমান, পঞ্চম সফর শুরু হয়েছে ভারতের রাষ্ট্রপতি শ্রীমতী প্রতিভা পাতিলের সাথে সাক্ষাতে. এ সাক্ষাতের পরে তিনি ভারতের জনসমাজের সাথে ইন্টারনেট সম্মেলনে অংশ নেবেন এবং কলকাতা,ব্যাঙ্গালোর ও মুম্বাই শহরের সাথে যোগাযোগ করবেন. এ সম্মেলন আয়োজিত হচ্ছে সিস্তেমা শ্যাম কোম্পানির পরিকাঠামোর ভিত্তিতে, যার ৭৪ শতাংশ শেয়ারের মালিক রাশিয়ার সিস্তেমা কোম্পানি. রাশিয়ার সরকারের প্রতিনিধি বলেন, ঐতিহ্যগত ব্যবসায়িক সম্মেলন রশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর প্রকৃতপক্ষে প্রত্যেকটি বিদেশ সফরের সময় হয়ে থাকে. এবারে তার রূপ পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়. এ আলাপের সময় পারস্পরিক পুঁজিনিয়োগ, পারমাণবিক ক্ষেত্রে সহযোগিতা, সংস্কৃতি ও শিক্ষার ক্ষেত্রে যোগাযোগ, ভারতে রেডিও রাশিয়ার কাজ এবং অন্যান্য প্রশ্ন আলোচনার পরিকল্পনা আছে.