দিল্লিতে আশা করা হচ্ছে যে, ১১-১২ই মার্চ রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিনের ভারত সফরের সময় অর্থনৈতিক ও সামরিক-প্রযুক্তিগত ক্ষেত্রের চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে. মস্কোয় ভারতের রাষ্ট্রদূত শ্রী প্রভাত শুক্লা ইন্টারফাক্স সংবাদ সংস্থাকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেন, আমরা জ্বালানী ও বিদ্যুত্শক্তি ক্ষেত্রে ফলাফলের আশা করছি, সামরিক ক্ষেত্রে চুক্তি প্রণীত হয়েছে ও স্বাক্ষরের জন্য প্রস্তুত. তিনি উল্লেখ করেন যে, দু দেশের অর্থনৈতিক সহযোগিতা পারস্পরিক ক্রিয়াকলাপের অন্যান্য ক্ষেত্র থেকে পিছিয়ে রয়েছে. তিনি বলেন, এ কথা স্বীকার করেন আমাদের দু দেশের নেতারা, এবং আমাদের সকলের কাজ করে যাওয়া উচিত, যাতে এ পশ্চাত্পদতা দূর করা যায়. অতএব, আলোচ্য সূচিতে প্রথম দারা গুলির মধ্যে থাকবে অর্থনীতি এবং জ্বালানী ও বিদ্যুত্শক্তি – যেমন পারমাণবিক, তেমনিই হাইড্রো-কার্বন এনার্জিসংক্রান্ত প্রশ্ন, এবং এ সব বিষয়ে পূর্ণপরিসরের বন্ধুত্বপূর্ণ মত বিনিময় হবে.