আমেরিকার নেভারল্যান্ড নামের মাইকেল জ্যাকসনের খাস তালুকে ভারতের ফ্যানেরা সাড়ে তিন টন ওজনের একটি কালো কষ্টি পাথরের খোদাই করা মূর্তি তৈরী করে পাঠাচ্ছে, সেখানে তাঁর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধার অর্ঘ হিসেবে. ভারতের গোল্ডেন গ্র্যানাইট কোম্পানীর মালিক এই মূর্তি বানিয়ে জ্যাকসন স্মৃতি ফান্ড কে উপহার দিয়েছেন এবং এই মূর্তির পরিবহন ও স্থাপন করার জন্য সমস্ত খরচ তিনি বহন করতে তৈরী. বাঙ্গালোর শহরে ৪ থেকে ৭ই ফেব্রুয়ারী নবম স্টোন -২০১০ প্রদর্শনীতে জীবন্ত ও বাস্তব সদৃশ প্রাকৃতিক পাথরে খোদিত মূর্তিটি মেলা প্রাঙ্গণের মূল দ্রষ্টব্য হয়েছে. তিনশ টির বেশী কোম্পানী এই প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছে, তার মধ্যে ১০০ টিরও বেশী এসেছে ইতালি, জাপান, কোরিয়া, তুরস্ক ও অন্যান্য দেশ থেকে. কিন্তু প্রায় ৪ মিটার উঁচু এই মাইকেল জ্যাকসনের মূর্তি প্রদর্শনীর অন্য সব দ্রষ্টব্য উদাহরণ গুলিকে ম্লান করে দিয়েছে. প্রদর্শনী উদ্বোধনের পরেই এই মূর্তি দেখতে ভিড় জমে যায় ও বিশাল লাইন পড়ে. সবাই চেয়েছে মূর্তিটি ছুঁয়ে দেখতে. এই মূর্তি তৈরী করতে এক মাসের বেশী সময় লেগেছে, প্রথমে পাথর টিকে মূর্তির উপযুক্ত করতে কাজ করছেন প্রায় কুড়ি জন লোক. তারপর এই কোম্পানীর ছয় জন সেরা ভাস্কর মূর্তি টিকে সম্পূর্ণ রূপ দিয়েছেন. আগামী মাসে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিম উপকূলে মূর্তি টিকে পাঠানো হবে বলে আশা করা হচ্ছে.