তাইওয়ানকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রায় ৬৫০ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রী করার সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে চীনের সামরিক কর্তারা মনে করেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানী গুলির বিপক্ষে নেওয়া ব্যবস্থা ঠিক ও কার্যকরী হয়েছে. বেইজিং এই বিষয়ে চীনের জাতীয় প্রতিরক্ষা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাউন্টার অ্যাডমিরাল ইয়ান ই ঘোষণাটি করেছেন. তিনি উল্লেখ করেছেন যে, তাইওয়ানকে অস্ত্র সরবরাহ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই ভাবে চীনের আভ্যন্তরীন বিষয়ে হস্তক্ষেপ করছে. ঝেনমিন ঝিবাও সংবাদপত্রে লেখা হয়েছে যে, আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দুই দেশের সহযোগিতা সম্পর্কের বহু বিষয়ে এই অস্ত্র বিক্রয় প্রভাব ফেলবে, প্রথমতঃ আফগানিস্থানের, ইরানের ও উত্তর কোরিয়ার পরিস্থিতির বিষয় গুলিতে.