২০০৯ সালের সবচেয়ে বড় ঘটনা, সমস্যা, বিজয় এই সব কিছু নিয়েই আগামী কাল মস্কোর দুপুর বারোটায় রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ আলোচনা করবেন এক সরাসরি প্রচারিত হওয়া টেলিভিশন সাক্ষাত্কারে. যাঁরা এই আয়োজন করেছেন তাঁরা হলেন, রাশিয়ার তিনটি রাষ্ট্রীয় সরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের প্রধান. রেডিও রাশিয়া তার নতুন সাইটে রুশ ও ইংরাজী ভাষায় ভিডিও সম্প্রচার করবে. এই প্রচারের কাজে সহায়তা করবে vesti.ru এবং russiatoday.ru.

         এই অনুষ্ঠানের নাম দেওয়া হয়েছে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির সাথে সারা বছরের হিসেব. ক্রেমলিনে যে রকম বলা হয়েছে, তাতে বোঝা গেল যে, রাশিয়ার তিনটি চ্যানেলের প্রধানেরা এই সাক্ষাত্কারে শুধু প্রশ্নই করবেন না, বরং সামাজিক ভাবে বাস্তব ও গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞের কাজও করবেন. রাশিয়ার নেতার সঙ্গে সাক্ষাত্কারের সময় অবশ্যই অনেক কঠিন সমস্যার কথাও তোলা হবে, বলে মনে করেছেন এক রেডিও রাশিয়া কে দেওয়া সাক্ষাত্কারে লোকসভার জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের উপ প্রধান গেন্নাদি গুদকোভ. তিনি বলেছেনঃ

    "নে হয়, ইউরোপীয় নিরাপত্তার সম্পর্কে প্রশ্ন থাকবে. আরও নিরস্ত্রীকরণ সম্বন্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চুক্তির কথাও উঠবে. অবশ্যই দুর্নীতি, সন্ত্রাসবাদ, জাতীয় নিরাপত্তা ইত্যাদি প্রশ্নও বাদ পড়বে না. সায়ানো সুশিনস্কি জল বিদ্যুত কেন্দ্রে দুর্ঘটনা, রেল পথে বিস্ফোরণ, যেখানে মস্কো ও সেন্ট পিটার্সবার্গের মধ্যে চলাচল কারী নেভস্কি এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনা, পের্ম শহরের বিগত কিছুদিন আগের অগ্নি কাণ্ড, যার ফলে শতাধিক লোক নিহত হয়েছেন, কিছুই বাদ দেওয়া হবে না. আমি মনে করি রাষ্ট্রপতি এই সব বিষয়েই মনোযোগ দেবেন".

    জাতীয় বিধানসভার উচ্চকক্ষের আন্তর্জাতিক রাজনীতি পরিষদের উপ প্রধান ভাসিলি লিখাচেভ বিশ্বাস করেন যে, দিমিত্রি মেদভেদেভের মনোযোগের কেন্দ্রে থাকবে নিরাপত্তার প্রশ্ন. সেনেটর মনে করেন যে, একই সঙ্গে কথা হবে স্বাস্থ্য, সামাজিক জীবন ও বিভিন্ন ভাতা বিষয়ের প্রশ্ন, দেশের শিল্পের প্রযুক্তি ও যন্ত্রপাতির বর্তমান অবস্থা নিয়ে প্রশ্নও থাকবে. দেশের রাষ্ট্রপতি সামরিক রাজনৈতিক প্রশ্নের উত্তরও দেবেন. তিনি বলেছেনঃ

    "আমি দুটি বিষয় বিশেষ করে উল্লেখ করব. প্রথমটি হল, দেশের আভ্যন্তরীণ বিষয়. যেমন, আমার ইচ্ছা আছে জানার যে, রাষ্ট্রপতির উদ্যোগে রাজনৈতিক ও আর্থসামাজিক যে সমস্ত ব্যবস্থা উত্তর ককেশাসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার জন্য নেওয়া হয়েছে, সে গুলি ছাড়া আর কি করার আছে, যাতে এখানের পরিস্থিতি একেবারে স্বাভাবিক হয়. দ্বিতীয় প্রশ্ন থাকবে রাশিয়ার আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে কূটনৈতিক সক্রিয়তা বৃদ্ধির প্রশ্ন নিয়ে. সর্ব প্রথম মস্কো এবং ওয়াশিংটনের দ্বিতীয় স্ট্র্যাটেজিক রণনৈতিক আক্রমণাত্মক চুক্তির দ্রুত সমীকরণের জন্য সমস্যা গুলিকে কিভাবে সমাধান করা হয়েছে. আরও আগামী বছরে ইউরোপীয় সংঘ এবং রাশিয়ার মধ্যে স্ট্র্যাটেজিক সহযোগিতা চুক্তির কি পরিস্থিতি".

    উল্লেখ্য যে, এই প্রথম বার যে দেশের রাষ্ট্রপতি এই রকম বিশদ সাক্ষাত্কার দিচ্ছেন তা নয়. এই ধরনের কাজ গত বছরও করা হয়েছে এবং গত ২৪ শে ডিসেম্বর তা হয়েছিল. তখন এটি ছিল দিমিত্রি মেদভেদেভের দেশের নাগরিক দের সঙ্গে প্রথম দীর্ঘ টেলিভিশন সাক্ষাত্কার. গত বছরে রাষ্ট্রপতি উত্তর দিয়েছিলেন চ্যানেল ওয়ান, রাশিয়া এবং এন টি ভি চ্যানেলের প্রধানদের. এই সাক্ষাত্কার প্রতিটি চ্যানেল সন্ধ্যা বেলা তাদের মনোমত সময়ে দেখিয়েছিল. এই বার সব কিছুই হবে কিছুটা অন্যরকম, প্রথমে তিনটি চ্যানেল এক সময়ে একসাথে এই সাক্ষাত্কার সরাসরি দেখাবে, আর এর জন্য যে স্টুডিও ব্যবহার করা হবে তা কোন একটি বিশেষ চ্যানেলের নয়. দিমিত্রি মেদভেদেভের তথ্য সম্প্রচার সম্পাদিকা নাতালিয়া তিমাকোভা এই বিষয় উল্লেখ করে বলেছেন যে, সারা বছর ধরে রাষ্ট্রপতির বিভিন্ন ছোট সাক্ষাত্কার এই তিনটি জাতীয় চ্যানেলে বিভিন্ন সময়ে দেখানো হয়েছে, তাই বর্তমানের সাক্ষাত্কারটি হতে চলেছে বছর শেষের এক বিশেষ মূল্যায়ণ.