রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ আজ রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশ্বব্যাপী আবহাওয়া পরিবর্তন সংক্রান্ত ১৫শ সম্মেলনের কাঠামোতে রাষ্ট্র ও সরকারের নেতাদের সাক্ষাতে বক্তৃতা দিয়ে এ কথা বলেন. ১৯৯০ থেকে ২০২০ সালের মধ্যে রাশিয়ার দ্বারা এমন দুষিত গ্যাসের নির্গমণ ৩ হাজার কোটি টনের বেশি হ্রাস ২৫ শতাংশ হ্রাসের সমান. রাষ্ট্রপতি জোর দিয়ে বলেন যে, রাশিয়া নিজের অর্থনীতির জ্বালানী ও বিদ্যুত্শক্তির ফলপ্রসূতা বৃদ্ধি করবে এবং দুষিত বস্তুর নির্গমণ কমাবে, চুক্তি থাকুক বা না থাকুক. দমিত্রি মেদভেদেভ মনে করেন যে, বিশ্বব্যাপী চুক্তিতে অবশ্যই বিবেচনায় রাখা উচিত বনাঞ্চলের ভূমিকা, যা গ্রীন-হাউজ গ্যাস গ্রাস করে এবং উন্নয়নশীল দেশগুলিকে আদুনিক প্রকৌশল হস্তান্তরের গ্রহণযোগ্য পরিবেশ. মেদভেদেভ জোর দিয়ে বলেন যে রাশিয়া গ্রীন-হাউজ গ্যাসের নির্গমণ হ্রাসের দিক থেকে পৃথিবীতে অগ্রস্থানে রয়েছে. শেষ ১৭ বছরে তার নির্গমণ ১৯৯০ সালের অনুরূপ সূচকের চেয়ে ৩০ শতাংশ কম. বিগত ২০ বছরে সারা পৃথিবীতে এ গ্যাস নির্গমণ হ্রাসের পরিমাণের অর্ধেক পড়ে আমাদের দেশের ভাগে. আর তা যথেষ্ট মাত্রায় পরিপুরণ করেছে অন্যান্য দেশের দ্বারা দুষিত গ্যাস নির্গমণের বৃদ্ধি, বলেন মেদভেদেভ. আজ সম্মেলনে ১৩০টিরও বেশি দেশের প্রতিনিধিদল চূড়ান্ত দলিল নিয়ে কাজ করছে.