ক্রীড়া সাংবাদিক ও ফ্যানেরা শেষ হয়ে আসা বছরের একটা উপসংহার করছেন. তাঁরা রাশিয়ার সোনা জয়ী দল রচনা করেছেন. এই দলে রয়েছেন ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ও রাশিয়ার প্রাচীনতম খেলার সংবাদপত্র প্রতিষ্ঠান সোভিয়েত খেলা পত্রিকার সম্মিলিত ভাবে আয়োজিত প্রতিযোগিতার বিজয়ী সাত খেলোয়াড় ও বিষয়. ফ্যান ও সংবাদপত্রের পাঠক দের বলা হয়েছিল সাতটি বিভাগে বিজয়ী স্থির করতে, বিভাগ গুলি হলঃ সবচেয়ে ভাল বিজয়, অ্যাথলেট ও মহিলা খেলোয়াড়, লিজেন্ড, রাজধানী, প্রোজেক্ট এবং খেলার মাঠ. কাজটা দেখা গেল খুব সহজ ছিল না, কিন্তু বিশেষজ্ঞরা রায় দিয়েছেন যে, ফল নৈর্ব্যক্তিক হয়েছে.

    বছরের সোনার জয় আখ্যা দেওয়া হয়েছে রাশিয়ার আইস হকি দলের বিশ্বের প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হওয়ার জন্য দুর্দান্ত খেলা. এই রকম বিজয় বিশ্বের খেলার জয়ের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে, কিন্তু শুধু ফুটবল বা আইস হকির লিজেন্ড দের কথাই মনে রাখলে চলবে না বলে মনে করেছেন রাশিয়ার হকি ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট ও তিন বার অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন হওয়া খেলোয়াড় ভ্লাদিস্লাভ ত্রেতিয়াক. তিনি বলেছেনঃ

    আজ বেশী করে বলা উচিত্ আমাদের সোভিয়েত ও রাশিয়ার খেলাধূলার ঐতিহ্যের কথা. কারণ সত্যি করে দেখলে দেখা যাবে যে, আমাদের দেশে খেলাধূলার বিষয়ে বেশ অনেক লিজেন্ড রয়েছেন, যাঁরা সোভিয়েত দেশ ও রাশিয়ার খেলার মান কে বিশ্বের দরবারে প্রতিষ্ঠা করেছেন বহুদিন ধরে. দুঃখের কথা হল, এখন কত লোকই বা তাঁদের মনে রেখেছেন. লোকে জানে আইস হকি বা ফুটবল খেলোয়াড়দের, বাকী খেলার নায়কদের সহজেই ভুলে যায়.

    রাশিয়ার সেরা মহিলা খেলোয়াড় আখ্যা পেয়েছেন টেনিস খেলোয়াড় স্ভেতলানা কুজনেত্সভা, আজকের দিনে বিশ্বের রেটিং এ তৃতীয়. তাঁর ঝুলিতে রয়েছে এই বছরে বেশ কয়েকটি দারুণ জয়. এবং ফরাসী দেশে ফ্রেঞ্চ ওপেন টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়নের খেতাব.

    বছরের সেরা খেলোয়াড় আখ্যা পেয়েছেন নানা রকমের কুস্তী ধরনের খেলার সেরা ফিওদর এমিলিয়ানেঙ্কো, যিনি কয়েকটি ভোটে এগিয়ে ছিলেন টেনিস খেলোয়াড় নিকোলাই দাভিদেঙ্কো এবং হকি খেলোয়াড় আলেকজান্ডার অভেচকিন এর চেয়ে. হকি ট্রেনার ভিক্টর তিখনভ কে দেওয়া হয়েছে লিজেন্ড অফ রাশিয়ান স্পোর্টস এর সম্মান.

    সবচেয়ে ভাল খেলার জায়গা বলে লোকে ভোট দিয়েছে মস্কো শহরতলিতে নির্মিত আইস স্কেটিং রিং কলোমনা, আর বছরের সেরা খেলার প্রোজেক্ট হয়েছে রাশিয়ার স্কি প্রোজেক্ট, যেখানে সারা দেশের বহু মানুষ যোগ দিয়েছিলেন. সেরা খেলার শহরের খ্যাতি জুটেছে কাজান শহরের, মস্কো. সেন্ট পিটার্সবার্গ, সোচী এই সব বিখ্যাত শহরের হাত থেকে জয় ছিনিয়ে নিয়েছে কাজান. ২০১৩ সালের ইউনিভার্সিয়াড প্রতিযোগিতার জন্য এই শহরে আয়োজন চলছে এখন পুরোদমে. তাতারস্থানের রাজধানীতে বর্তমানে যেসব নতুন খেলার মাঠ স্টেডিয়াম ইত্যাদি তৈরী হয়েছে, তার দিকে তাকিয়ে হিংসায় বুক ফেটে যাচ্ছে, শুধু রাশিয়ার বাকী শহর দেরই নয়. রাশিয়ার ফুটবল চ্যাম্পিয়ন দল রুবিনের ইউরোপীয় লিগ প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া এবং বর্তমানে খেলা চালিয়ে যাওয়া এই শহরকে চ্যাম্পিয়ন দের শহর বানিয়েছে. সারা দুনিয়ার ফুটবল ফ্যানেরা এখন কাজান শহরকে এক ডাকে চেনে.