মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসন ইরানের বিরুদ্ধে বাধানিষেধ যথেষ্ট প্রসার করতে চায়. রবিবারের নিউজউইকপত্রিকা জানিয়েছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা আছে যা অনুযায়ী সেই সব ফার্মের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা প্রবর্তন করার কথা, যাদের নেতৃত্বের ভার রয়েছে ইস্লামিক বিপ্লবের রক্ষকদের কর্পাসের পরিচালকদের হাতে. হোয়াইট হাউজের তথ্য অনুযায়ী, এই কর্পাসের প্রতিনিধিরা কোনো না কোনো ভাবে ইরানের অর্থনীতি নিয়ন্ত্রণ করছে, বিশেষ করে টেলি-কমিউনিকেশন কোম্পানিগুলিকে, তাছাড়া অর্থ ব্যবস্থা এবং জ্বালানী ও বিদ্যুত্শক্তির শাখা. তাছাড়া, এ কর্পাসের পৃথক পৃথক প্রতিনিধি প্রতিবেশী দেশগুলিতে ব্যক্তিগত পুঁজি নিয়োগকারী হিসেবে অংশগ্রহণ করছে, লিখেছে নিউজউইক পত্রিকা. মার্কিনী প্রশাসনে মনে করা হচ্ছে যে, তারা সরকারের অনুমতিতে কালো অর্থনীতির সাহায্যে অর্থ উপার্জন করছে. কূটনৈতিক প্রচেষ্টায় যদি তেহেরানের দ্বারা তার পারমাণবিক কর্মসূচি বন্ধ করা সম্ভব না হয়, তাহলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে নিজের অঙ্গীকার পুরণ করতে হবে এবং এ দেশের বিরুদ্ধে বাধানিষেধ কঠোর করতে হবে, মনে করা হচ্ছে মার্কিনী প্রশাসনে.