পেশাদার সংবাদ সংস্থা দেশের সার্বভৌমত্ত্বের প্রতীক. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি আজ এই সম্বন্ধে ঘোষণা করেছেন. মস্কো শহরে আজ ইউরোপ ও এশিয়ার মিডিয়া কোম্পানী গুলির ফোরামে তিনি অংশ নিয়ে এই কথা বলেছেন. বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, এই কথা রাশিয়া ও অন্যান্য দেশের জন্য প্রযোগ করা যায়.

ইতিহাস আমরা সৃষ্টি করছি, আর আমরা এখন এই ইতিহাসের অংশ. তাই আমাদের উচিত্ একে অপরের কথা ভাল করে শোনা এবং তথ্য ভাল করে বোঝা, যা আমাদের এই সব দেশগুলিতে এখন উত্পন্ন হচ্ছে. সেখানে ঘোড়ার মত এক দিকে শুধু তাকিয়ে থাকলেই চলবে না, কোন তত্ত্ব কথা দিয়ে মানে করার দরকার নেই, শান্ত ভাবে ও বাস্তবকে লক্ষ্য করে তা গ্রহণ করতে হবে, এটা অনেক লক্ষ্যের একটি ভাল লক্ষ্য. অবশ্যই আধুনিক সংবাদ মাধ্যমের পেশাদারী কর্মী সহ উপস্থিতিকে একটি শক্তিশালী দেশের সার্বভৌমত্ত্বের প্রতীক বলে আমি মনে করি. সেই দেশের আয়তন কতটা  - তা বড় না ছোট, তাতে কিছু  যায় আসে না. যদি তাদের নিজেদের আধুনিক সংবাদ মাধ্যম থাকে, বিদেশ থেকে আমদানী করা সংবাদ সংস্থা নয়. যারা নিজেরা সক্রিয় ভাবে প্রচার করে এবং নিজেদের দেশের খবরের পাতা বোঝাই করে, তবে সেই মাধ্যম দেশের গৌরব, বিশেষ করে আমি এটাকে রাশিয়ার জন্য প্রযোজনীয় বলে ভাবি.

রাষ্ট্রপতি স্বাধীন রাষ্ট্রসমূহের জোটের মধ্যে আরও পারস্পরিক বোঝাপড়া করার জন্য আহ্বান করেছেন, তিনি বলেছেন তথ্য কে ঘোড়ার মত শুধু সামনে না দেখে আর তার মধ্যে কোন তত্ত্ব কথা না খুঁজে সাধারন ভাবে নিতে. তিনি আজ মস্কো শহরে বুধবারে রিয়া নোভস্তি সংস্থা আয়োজিত এই ইউরোপ ও এশিয়ার মিডিয়া ফোরামে যোগ দিয়েছেন. রাশিয়ার নেতা প্রস্তাব করেছেন অংশতঃ স্বাধীন রাষ্ট্রসমূহের জোটের রাষ্ট্র গুলিকে ডিজিট্যাল সম্প্রচারের কাজ একসাথে করতে. তাঁর মতে, জনতার মধ্যে প্রচারের মাধ্যমের উন্নতি স্বাধীন রাষ্ট্রের লক্ষণ এবং এই লক্ষণ যেমন রাশিয়ার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, তেমনই বাকি দেশ গুলির জন্যও প্রযোজ্য. বর্তমানের ফোরাম প্রাক্তন সোভিয়েত দেশের রাজ্য ও অধুনা স্বাধীন রাষ্ট্র গুলির মিডিয়া ফোরাম হিসাবে চতুর্থ. প্রথমটি হয়েছিল ২০০৬ সালে. এর উদ্দেশ্য বর্তমানের বিশ্বে মিডিয়ার সমস্যা ও সমাধানের পথ নিয়ে আলোচনা. এই ফোরামে প্রাক্তন সোভিয়েত দেশের থেকে রাশিয়া ও অন্যান্য স্বাধীন রাষ্ট্র জোটের ৩০০ র বেশী টেলিভিশন ও সংবাদপত্রের কর্মকর্তা  ও উচ্চ পদস্থ কর্মচারী যোগ দিয়েছেন.

রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ আজ ইউরোপ ও এশিয়ার মিডিয়া ফোরামে বক্তৃতা দিতে গিয়ে ঘোষণা করেছেন যে, রাশিয়া আগামী ২০১৫ সালের মধ্যেই ডিজিট্যাল সম্প্রচার শুরু করতে চলেছে এবং তিনি একই সঙ্গে স্বাধীন রাষ্ট্রসমূহের জোটের দেশ গুলিতেও এই সম্প্রচার শুরু করার পক্ষে. তিনি বলেছেনঃ "রাশিয়াতে বর্তমানে কয়েকটি ডিজিট্যাল অঞ্চল রয়েছে, যেখানে ডিজিট্যাল টেলিভিশন প্রচার করা হয়, যেমন মস্কোতে, সেন্ট পিটার্সবার্গে. ২০১৫ সালে আমি আশা করছি যে, সারা দেশেই আমরা পুরোদমে ডিজিট্যাল টেলিভিশন সম্প্রচারের কাজ চালু করতে পারব". বুধবারে রিয়া নোভস্তি সংস্থা আয়োজিত এই ফোরামে যোগ দিয়ে তিনি বলেছেনঃ "এই কাজের জন্য সরকারের ও ব্যক্তিগত মালিকানার উদ্যোগে অনেক অর্থ দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে, এটা কয়েক হাজার কোটি ডলার". রাষ্ট্রপতির কথায় "একই ধরনের বিষয় চলবে স্বাধীন রাষ্ট্রসমূহের জোটের দেশ গুলিতে. ঐক্যবদ্ধ ডিজিট্যাল সম্প্রচারের পরিমণ্ডল থাকা মানেই ঐক্যবদ্ধ তথ্য ভাণ্ডার আর এটা আমাদের জন্য অবশ্যই মূল্যবান এবং তা তর্কাতীত".

দেশের নেতা আরও বলেছেন যে, ব্যক্তিগত ইন্টারনেটের ডায়েরি – সরাসরি কথা বলার জন্য ভাল উপায়, সেখানে সবচেয়ে টাটকা খবর পাওয়া যায় এবং নিজেকে কিছুটা সাংবাদিকের মত মনে হয়. তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন, গত এক বছরের কিছু আগে থেকে তিনি নিজের ব্লগ লিখতে শুরু করেছেন. "চেষ্টা করি এই সব বিষয়ে নিজেই সব কিছু করতে. আশা করছি লোকে আমার নিজের তথ্য প্রচারের কাজে আমার ব্যক্তিগত চিহ্ন খেয়াল করতে পেরেছেন". বলা দরকার যে, রাশিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান আশ্বাস দিয়েছেন যে, তিনি এই ফোরামের ফল সম্বন্ধে জেনে নেবেন. তিনি সাংবাদিক দের বলেছেন যে, এই ফোরামের ফলাফল সম্বন্ধে বাক স্বাধীনতার কথা মাথায় রেখে রিপোর্ট লিখতে.