আবহাওয়া পরিবর্তনে অভ্যস্ত হওয়ার তহবিলের অন্ততপক্ষে ১৫ শতাংশের দাবি করতে চায় বাংলাদেশ, যে তহবিল কোপেনহেগেনে রাষ্ট্রসঙ্ঘের আবহাওয়া সংক্রান্ত সম্মেলনে সুউন্নত দেশগুলির দ্বারা গঠিত হতে পারে, সাংবাদিকদের এ সম্পর্কে বলেছেন দেশের একোলজি সংক্রান্ত মন্ত্রী হাসান মাহমুদ খোন্দকার. মন্ত্রীর কথা উদ্ধৃত করে রয়টার সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, আমাদের দেশ আবহাওয়া পরিবর্তনের পরিণতির দিক থেকে সবচেয়ে বেশি ভঙ্গুর, এবং পৃথিবীর দেশগুলি স্বীকার করেছে যে, অভ্যস্ত হওয়ার জন্য আমাদের সহায়তা প্রয়োজন. তিনি উল্লেখ করেন যে, দেশের ১৫ কোটি অধিবাসীর মধ্যে অন্ততপক্ষে ২ কোটি জনকে নিজেদের বাড়ি-ঘর ছেড়ে যেতে হবে, যদি সমুদ্রতল এক মিটার উপরে ওঠে. তিনি বলেন, সমস্ত দ্বৈপ রাষ্ট্রের অধিবাসীদের চেয়ে আমাদের উপকূলবর্তী অঞ্চলের অধিবাসীদের সংখ্যা বেশি, আর তাই আবহাওয়া সংক্রান্ত যে কোনো তহবিলের অন্ততপক্ষে ১৫ শতাংশ আমাদের পাওয়া উচিত. দেশের আরও একটি মুখ্য দাবি হল সুউন্নত দেশগুলি থেকে সবচেয়ে ভঙ্গুর দেশগুলিকে নতুন প্রকৌশল হস্তান্তরের প্রক্রিয়া সহজ করা. আলাপ-আলোচনায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিদলের সদস্য, অর্থনীতিবিদ কাজি খলিকুজ্জামান আহমদ বলেন, আমরা কারুর কাছে ভিক্ষা চাইছি না. আবহাওযার পরিবর্তনে সবচেয়ে দুর্দশাগ্রস্ত হিসেবেই আমরা ন্যায়ের দাবি করছি.