রাশিয়ার বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয়ের প্রধান সের্গেই শইগু, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রশিদ নুরগালিয়েভ পের্ম শহরের নাইট ক্লাবে, যেখানে প্রায় শতাধিক লোক নিহত হয়েছে, সেই জায়গা দেখে এসেছেন. পের্ম শহরের বিমানবন্দর থেকে দুই মন্ত্রী সোজা ঘটনা স্থলে চলে যান. স্বাস্থ্য ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রী তাতিয়ানা গোলিকভা হাসপাতাল গুলিতে যেখানে আহত লোকেরা রয়েছেন, সে গুলি পরিদর্শন করছেন. বেশীর ভাগ আহত লোকের অবস্থাই আশংকা জনক. এখন এই ল্যাংড়া ঘোড়া নামের নাইট ক্লাবের চারপাশে পুলিশ ঘেরাও করে রেখেছে. বাইরে থেকে বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের চিহ্ন দেখাই যাচ্ছে না, সেখানে আরও কয়েকটি দমকলের গাড়ী দেখা যাচ্ছে. ক্লাবের ভেতরে দমকলের বিশেষজ্ঞরা ও পুলিশের গোয়েন্দারা কাজ করছেন.