সোমালিতে বিগত ছ মাসে সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসের ফলে ২২ জন নিহত হয়েছে, ৪০ জনের উপর আহত হয়েছে. এঁদের মধ্যে আছেন তিন জন মন্ত্রী- স্বাস্থরক্ষা মন্ত্রী, শিক্ষা মন্ত্রী ও সংস্কৃতি মন্ত্রী. মেয়েদের পোষাক পরা আত্মহত্যাকারী-সন্ত্রাসবাদী দেশের রাজধানী মোগাদিশো-র বৃহত্তম একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদের পাশ করা উপলক্ষ্যে সান্ধ্যানুষ্ঠানের সময় বিস্ফোরক ব্যবস্থা চালু করে. ডিগ্রি প্রদানের অনুষ্ঠানে সমবেত হয়েছিল কয়েক শো লোক, সেই সঙ্গে রাজনীতির উপর মহলের সকলে. কর্তৃপক্ষের স্থিরবিশ্বাস যে, এ সন্ত্রাস চালিয়েছে ইস্লামপন্থীরা. আন্তর্জাতিক জনসমাজের দ্বারা স্বীকৃত সোমালির অন্তর্বর্তী সরকার দেশের ভূভাগের শুধু সামান্য অংশের উপরেই, বিশেষ করে রাজধানীর অঞ্চলই নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারছে. আফ্রিকার এ দেশে শাসন ক্ষমতার জন্য সংগ্রাম করছে ইস্লামপন্থী দলগুলি এবং বংশীয় জোট.