সেন্ট পিটারবুর্গে শেষ হল রাশিয়ার অন্যতম রাজনৈতিক দল ইদিন্নায়া রাশিয়ার বা ইউনাইটেড রাশিয়ার ১১তম কংগ্রেস.এই প্রথমবারই দলের সুনির্দিষ্ট গঠনতন্ত্র নিয়ে আলোচনা করা হয়.আর তা ভবিষ্যতের কংগ্রেসও বজায় থাকবে বলে দলের সূত্র থেকে জানা যায় . আমলাতন্ত্রের জটিলতা দূর করণ ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রতিই এ বারের কংগ্রেসে বেশী জোর দেয়া হয়.
এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ইদিন্নায়া রাশিয়ার এ বারের কংগ্রেস অনুষ্ঠিত হল.অর্থনৈতিক মন্দা অনুষ্ঠানে কোন বিরূপ প্রভাব ফেলে নি, উপরন্তু বিভিন্ন দেশ থেকে আগত ডেলিগেটদেরকে আগের যেকোন বছরের তুলনায় এবার সর্বোচ্চ ধরনের আতিথিয়তা প্রদান করা হয়েছে.সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় রাশিয়ার ২য় গুরুত্বপূর্ণ শহর সেন্ট পিটারবুর্গে.
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ সম্মেলনের প্রধান আলোচ্য বিষয়ের প্রতি দৃষ্টি দিয়ে বলেন যে ,হোক তা দল কিংবা অর্থনীতি –সব ক্ষেত্রেই দরকার সুষম উন্নয়ন. মেদভেদেব বলেন,
“রাশিয়ার রাজনৈতিক ধারায় আমাদের দল বা ইদিন্নায়া রাশিয়া যথেষ্ট প্রভাবশালী একটি রাজনৈতিক দল. যদি আমরা তা ধরে রাখতে চাই তাহলে একই সাথে আমাদের দেশ ও দেশের অর্থনীতির উন্নয়নেও আমাদের এগিয়ে আসতে হবে”. রুশ প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ এ বিষয়ে তার দেওয়া বক্তৃতায় বিশদ ভাবে উল্লেখ করেন.
তবে দিমিত্রি মেদভেদেভের থেকে রুশ প্রধানমন্ত্রী ব্লাদিমীর পুতিন অর্থনীতির উপর বেশী গুরুত্ব দেন.তিনি প্রায় ১ ঘন্টা শুধুমাত্র অর্থনৈতিক মন্দা মোকাবিলায় রাষ্ট্র কর্তৃক গৃহীত কার্যক্রমের বর্ণনা করেন.পুতিন বলেন,
“আপনাদের সবারই পরিস্কার মনে আছে যে, এর আগেও আমরা এ ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলা করেছি ,এবং তা ছিল সত্যিকার অর্থেই অনেক কঠিন একটা সময়.এবং আমি তা দুর্বিষহ বলেও উল্লেখ করেছিলাম.ঐ সময় আমাদের দল ইদিন্নায়া রাশিয়া নিজেদের রাজনৈতিক দায়ভার নিয়ে এ পরিস্থিতির বিরুদ্ধে রীতিমত সংগ্রামে অবতীর্ণ হই যাতে আমাদের দেশে ১৯৯১ ও ১৯৯৮ সনের মত কঠিন সময় আর ফিরে না আসে.পুতিন বলেন শুধু এই একটি সমস্যাই নয়, আমাদের আরও অনেক সমস্যা আছে,তবে আমাদের এখান থেকেই শুরু করতে হবে”, উল্লেখ করলেন রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ব্লাদিমীর পুতিন.

<sound>