৬ই নভেম্বর তাতার প্রণালীর উপরে তু-১৪২ মার্কা সাবমেরিন-বিরোধী বিমানের কারণ, প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, ছিল প্রযুক্তিগত বিকলতা. এ সম্বন্ধে জানিয়েছেন রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর সদর দপ্তরের অধিকর্তা নিকোলাই মাকারোভ. বিমানটি পড়ে যাওয়ার প্রকৃত কারণ নির্ধারণ করা যাবে বিমানের ব্ল্যাক-বক্স খুঁজে পাওয়ার পরে. এই ব্ল্যাক বক্সের অনুসন্ধান চালানো হচ্ছে টাইগার সরঞ্জামের সাহায্যে. টেলি-নিয়ন্ত্রিত এ সরঞ্জামটি আজ জলতলে ভিডিও অধ্যয়ন শুরু করেছে বিমানের অংশেরমতো দেখতে সব জিনিসের. রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কমিশন দুর্ঘটনার তিনটি কারণ বিবেচনা করছেনঃ প্রযুক্তিগত বিকলতা, মানুষের দোষ এবং বাইরের উপাদানের প্রভাব, তার অর্থ ইঞ্জিনে পাখি ঢুকে পড়া, কারণ বিমানটি উচ্চতা কমাচ্ছিল. সামরিক প্রস্তুতির পরিকল্পনা অনুযায়ী বিমানটির উড্ডয়ন চালানো হচ্ছিল. এ বিমানে ছিল ১১ জন কর্মী. এখন প্রশান্ত মহাসাগরীয় ও উত্তরী নৌবাহিনীরতু-১৪২ মার্কা বিমানগুলির উড্ডয়ন স্থগিত রাখা হয়েছে এ দুর্ঘটনার কারণ নির্ধারণ পর্যন্ত.