রাশিয়ার সাংবিধানিক আদালত আজ মৃত্যুদণ্ডে স্থগিতাদেশ প্রলম্বনের সম্ভাবনা বিচার করছে. এই সর্বোচ্চ দণ্ড না দেওয়ার বাধ্যবাধকতা রাশিয়া গ্রহণ করেছে ১৯৯৬ সালে ইউরোপীয় পরিষদে যোগ দেওয়ার পরে. তার তিন বছর পরে স্থগিতাদেশ প্রবর্তিত হয়. সাংবিধানিক আদালতের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড ততদিন দেওয়া যাবে না, যতদিন না দেশের গোটা ভূভাগে জন-আদালত কাজ করতে শুরু করছে. ২০১০ সালের পয়লা জানুয়ারী থেকে এমন আদালত কাজ করতে শুরু করবে রাশিয়ার শেষ অঞ্চল- চেচনিয়াতে. এ উপলক্ষে সর্বোচ্চ আদালত সাংবিধানিক আদালতকে অনুরোধ করেছে ব্যাখ্যা করতে, আগামী বছরের গোড়া থেকে মৃত্যুদণ্ড প্রয়োগ করা সম্ভব কি না.