রুশ প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ বার্ষিক ফেডারেল অধিবেশনের আহবান করেছেন.এ অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১২ নভেম্বর.রুশ প্রেসিডেন্ট ঐ অধিবেশনের জন্য আলোচনার যে বিষয়বস্তু নির্ধারণ করেছেন তা সম্প্রতি রাশিয়ার প্রধান সারির একটি পত্রিকায় “রাশিয়া এগিয়ে যাও” শীর্ষক প্রবন্ধে প্রকাশিত হয়.যেখানে তিনি রাশিয়ার স্থায়ী কিছু সমস্যা চিহ্নিত করে তার সমাধানের প্রতি গুরুত্ব দেন.
দিমিত্রি মেদভেদেভের এটি ২য় ফেডারেল অধিবেশন.যা রাশিয়ার সাবেক অন্য দুই প্রেসিডেন্ট বরিস এয়েলসন ও ব্লাদিমীর পুতিনের ফেডারেল অধিবেশনের ধারা থেকে সম্পূর্ণ আলাদা.
“রাশিয়া এগিয়ে যাও”শীর্ষক ঐ প্রবন্ধে দিমিত্রি মেদভেদেভ রাষ্ট্রের কিছু উল্লেখযোগ্য সমস্যা তুলে ধরেন.আর এই সমস্যাবলী রাশিয়ার সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার প্রধান অন্তরায় বলে প্রেসিডেন্ট উল্লেখ করেন.রুশ প্রেসিডেন্টের ঐ প্রবন্ধের সাথে রাশিয়ার নাগরিকরাও একমত প্রকাশ করেছে.শুধুমাত্র ক্রেমলিনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটেই ঐ প্রবন্ধ পড়ে ১৬ হাজার রুশ নাগরিক তাদের মতামত জানান.
“রাশিয়া এগিয়ে যাও” প্রবন্ধে দিমিত্রি মেদভেদেভ একই সাথে ভবিষ্যতের প্রেসিডেন্ট বার্তা কী হবে সে বিষয়েও ইঙ্গিত প্রধান করেন.তিনি রাষ্ট্রের প্রধান সমস্যাবলী একেএকে বর্ণনা করেন .রাশিয়ার নিরাপত্তা ও অস্ত্রসজ্জা বৃদ্ধি সংক্রান্ত বিষয়ে বর্ণনা করতে গিয়ে দিমিত্রি মেদভেদেভ বলেন-
“আমরা আমাদের দেশের নাগরিকদের জীবনের নিরাপত্তা দিতে বদ্ধ পরিকর এবং তারা নিজেও যেন অনুভব করে যে তারা সম্পূর্ণ নিরাপদ”.
মেদভেদেভ একিই সাথে উল্লেখ করে বলেন সময়ের সাথে অনেক কিছুরই পরিবর্তন এসেছে.আমরা চিন্তা করি যে রাষ্ট্রই সব সমস্যা সমাধান করবে.কিন্তু বিষয়টি পুরোপুরি সঠিক নয়. রাষ্ট্রের সাথে সকল সামাজিক প্রতিষ্ঠানেরও এগিয়ে আসতে হবে.
রাশিয়ার স্থায়ী সমস্যাবলী নিয়ে আলোচনায় দিমিত্রি মেদভেদেভ প্রথমই রাশিয়ার অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেন.এক্ষেত্রে তিনি রাষ্ট্রে স্থায়ী দুর্নীতি সমস্যাকে প্রধান অন্তরায় বলে উল্লেখ করেন.মেদভেদেভ বলেন-
“আমার মনে পরছে যে আমাদের অনেক নাগরিককেই দুর্নীতির দায়ে জেলে যেতে হয়েছে, অনেকেই তাদের চাকুরী হারিয়েছেন.নাগরিকদের আইনগত সুরক্ষা প্রদানকারী সংস্থাগুলি এ ব্যাপারে নাগরিকদের সচেতন করতে পারে.যা হতে পারে কার্যকর”.
রাষ্ট্রের বহিঃ ও অভ্যন্তরীন ব্যাবসা-বানিজ্য আরও বৃদ্ধি সংক্রান্ত বিষয়ে প্রেসিডেন্ট তার ঐ “রাশিয়া এগিয়ে যাও” প্রবন্ধ বিস্তারিত বর্ণনা করেন. মেদভেদেভ বলেন-“ব্যবসায়িক প্রক্রিয়া এটা আমাদের কোন শত্রু নয় যে তার বিরুদ্ধে আমাদের সংগ্রাম করতে হবে .যখনই আমাদের বড় বড়় শহরে কোন সুপার মার্কেটের দোকান চালু করা হয় ঠিক কিছুদিন পরেই ঐ মার্কেটের শাখা রাশিয়ার অন্য ছোট শহরেও দেখা যায়,এ থেকে বুঝতে পারা যায় যে এই ছোট শহরটিও উন্নতির দিকে এগিয়ে যাচ্চে এবং লোকজনও ঐ সব সুপার মার্কেটগুলোতেই বাজার করতে পছন্দ করেন.সমস্যা এটা নয় যে নতুন নতুন সুপার মার্কেট উদ্বোধন হচ্ছে, সমস্যা হল দ্রব্যসামগ্রীর বাজারজাত করা.আর তা হল স্থানীয় অনেক ডিলারই অপেক্ষাকৃত কম দামে তাদের পণ্য ঐ সব সুপার মার্কেটে সরবরাহ করতে পারে.কিন্তু মার্কেট কর্তৃপক্ষ তা হতে দিচ্ছে না.আমাদের এই সমস্যা এখন সমাধানের পথ খুঁজতে হচ্ছে” .
ফেডারেল অধিবেশন আহবান যা রাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্র নীতি বিষয়েও আলোচনা করা হবে এবং তা রাশিয়ার সংবিধানেও পরিস্কারভাবে উল্লেখ আছে.অধিবেশনে আমন্ত্রন জানানো হবে রাশিয়ার পার্লামেন্ট সদস্য, আদালতের উপ-প্রধান ও সামাজিক সংস্থাকে.
গতবছর এ ফেডারেল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ৫ নভেম্বর.