স্বাধীন রাষ্ট্রবর্গের দেশগুলির নেতারা আজ কিশিনেভে বিশ্ব সঙ্কট অতিক্রমের মিলিত ব্যবস্থা আলোচনা করবেন. শীর্ষ সাক্ষাতে এ বিষয়টি হবে প্রধান, আর নেতাদের অনুমোদনের জন্য পেশ করা হবে প্রায় ২০টি দলিলের খসড়া. মোলদাভিয়ার রাজধানীতে স্বাধীন রাষ্ট্রবর্গের সভাপতির দায়িত্ব হস্তান্তর করা হবে রাশিয়াকে. মস্কো রাশিয়ার সভাপতিত্ব সংক্রান্ত ধারণা পেশ করবে. প্রাধান্যমূলক বিষয় – স্বাধীন রাষ্ট্রবর্গের এলাকায় বৈজ্ঞানিক-প্রাকৌশলিক ও নবায়ন ক্ষেত্রে সহযোগিতা. তাছাড়া, রাশিয়া বিশেষ মনোযোগ দিতে চায় ফ্যাশিস্ট জার্মানির বিরুদ্ধে বিজয়ের ৬৫তম বার্ষিকী উপলক্ষে সমারোহের প্রস্তুতির প্রতি. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ কিশিনেভে আজেরবাইজান ও আর্মেনিয়ার রাষ্ট্রপতিদের সাথে ত্রিপাক্ষিক সাক্ষাতে মিলিত হবেন. এ শীর্ষ সাক্ষাতে বিভিন্ন কারণে আসতে পারবেন না কাজাখস্তান, উজবেকিস্তান, তাজিকিস্তান ও তুর্কমেনিয়ার রাষ্ট্রপতিরা. কিশিনেভে স্বাধীন রাষ্ট্রবর্গের নেতাদের শীর্ষ সাক্ষাতে মোলদাভিয়ার নতুন নেতৃবৃন্দের "প্রাচ্য" নীতির, বলা যায়, উপস্থাপনা হবে. প্রজাতন্ত্রের নেতৃবৃন্দ ইতিমধ্যেই ব্রাসেলসে ইউরোসঙ্ঘের নেতৃবৃন্দের প্রতিনিধিদের সাথে আলাপ-আলোচনা চালিয়েছেন সঙ্কটে ক্ষতিগ্রস্ত প্রজাতন্ত্রকে সাহায্য করা সম্পর্কে. এখন এ বিষয়টি সহকর্মীদের সাথে আলোচনা করতে হবে.