পারমাণবিক অস্ত্র প্রসার নিরোধ এবং পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের প্রক্রিয়া সক্রিয় করা সম্ভব শুধু রণনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখা এবং সমান নিরাপত্তার মূলনীতি সুনিশ্চিত করার পরিবেশে. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুর্কিন, নিউ-ইয়র্কে নিরস্ত্রীকরণ ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তার প্রশ্ন আলোচনা করা রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলির কমিটির বৈঠকে বক্তৃতা দিয়ে. মস্কো রণনৈতিক রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষার ক্ষমতা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে একতরফা পদক্ষেপ গ্রহণের বিরুদ্ধে একনিষ্ঠভাবে মত প্রকাশ করে চলেছে এবং মনে করে যে, এ ধরণের ক্রিয়াকলাপ পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের পথে অগ্রগতি যথেষ্ট জটিল করে তোলে, জোর দিয়ে বলেন কূটনীতিজ্ঞ. রণনৈতিক প্রতিরক্ষাত্মক এবং রণনৈতিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জার মাঝে অবিচ্ছিন্ন সম্পর্ক রয়েছে, উল্লেখ করেন তিনি. রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র "সক্রিয়ভাবে কাজ করছে পূর্ণ পরিসরের বিধানিক দিক থেকে বাধ্যতামূলক চুক্তি প্রণয়ন নিয়ে, যা রণনৈতিক আক্রমণাত্মক অস্ত্রসজ্জা সংক্রান্ত চুক্তির স্থান নেবে. নতুন চুক্তিতে আশা করা হচ্ছে সূত্রবদ্ধ হবে পারমাণবিক ওয়ারহেডের মানের এবং রণনৈতিক বাহকের সংখ্যা যথেষ্ট হ্রাসের", উল্লেখ করেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি.