পাকিস্তানের কর্তৃপক্ষ ইস্লামাবাদে রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির ভবনে বিস্ফোরণ আয়োজনের জন্য তালিবান আন্দোলনের উপর দোষারোপ করেছে. স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রহমান মালিকের কথায়, সোমবারের এ সন্ত্রাস হল তালিবদের প্রতিশোধ তাদের নেতা বাইতুল্লা মহসুদের মৃত্যুর জন্য, যে ৫ই আগস্ট মার্কিনী বৈমানিকহীন বিমানের রকেট আঘাতে মারা গিয়েছিল. আগে স্থানীয় পত্রপত্রিকা জানিয়েছিল যে, বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে আত্মহত্যাকারী সন্ত্রাসবাদী.এ সন্ত্রাসের শিকার হয় তিনজন, তাদের মধ্যে একজন বিদেশী. আরও পাঁচজন আহত হয়েছে. রাষ্ট্রসঙ্ঘ পাকিস্তানের গোটা ভূভাগে নিজের সব দপ্তর সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে. সবচেয়ে বড় সন্ত্রাস হয়েছিল ২০০৮ সালে "ম্যারিয়ট" হোটেলের প্রবেশপথে, যখন বেশ কিছু লোক নিহত হয়েছিল.