রাশিয়া রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য সংখ্যা বাড়ানোর জন্য আপোষ নিষ্পত্তির আহ্বান জানিয়েছে. এই ঘোষণা, আমাদের সাংবাদিক যে রকম জানিয়েছেন, তা অনুসারে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ রাষ্ট্রসংঘের সাধারন সভায় বক্তৃতা দিতে গিয়ে করেছেন. রাশিয়ার নেতা মনে করেন এই সংস্থার বিশ্বের বাস্তব অবস্থার সঙ্গে পাল্টানো উচিত্. রাষ্ট্রসংঘের উচিত্ নিজের প্রভাব বিস্তার করা, রাষ্ট্রগুলির মধ্যস্থ হওয়ার ভূমিকা পালন করা এবং সংস্থার মূল দলিলে গৃহীত প্রধান নীতি ও তত্ত্ব গুলি পালন করা. মেদভেদেভ আরও উল্লেখ করেছেন যে, আজকের দিনে রাষ্ট্রসংঘ বিশ্ব সমাজের গঠনের ভিত্তি. রাষ্ট্রসংঘের মাধ্যমেই জি-৮, জি-২০ ও অন্যান্য মধ্যস্থতাকারী সংস্থা গুলির সম্মেলনে গৃহীত সিদ্ধান্ত গুলি কার্যকরী করা হয়. সুতরাং এই কারণেই রাষ্ট্রসংঘের ভূমিকার প্রয়োজন বৃদ্ধি হয়েছে, রাষ্ট্রসংঘ সমস্ত দেশ ও জাতির স্বার্থে এক সুরে কাজ করে থাকে. রাষ্ট্রসংঘের প্রধান কাজ গুলির মধ্যে রাষ্ট্রপতি বলেছেন, ফ্যাসীবাদের মাথাচাড়া দেওয়া ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ফলাফল কে পুনর্বিচার করার অপচেষ্টা শক্ত হাতে দমন করা.